Advertisement
১৮ জুন ২০২৪
Tamluk Municipality

রাস্তার জন্য গাছে কোপ, অভিযুক্ত উপ পুরপ্রধান

যদিও আশেকার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তমলুক শহর তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি তথা জেলা তৃণমূলের সাধারণ সাধারণ সম্পাদক দিব্যেন্দু রায়।

কাটা হয়েছে গাছ।

কাটা হয়েছে গাছ। — ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক শেষ আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ০৯:১৭
Share: Save:

পুকুরের পাশ দিয়ে রাস্তা তৈরি করার জন্য এক ব্যক্তির জমিতে থাকা তালগাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তমলুক শহরের তৃণমূল নেতা দিব্যেন্দু রায় সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে।

তমলুক পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর তথা উপ-পুরপ্রধান লীনা মাভৈ রায়, তাঁর স্বামী দিব্যেন্দু রায় সহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে এবিষয়ে সম্প্রতি তমলুক থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আশেকা বেগম। ওই ঘটনার জেরে রাজনৈতিক মহলে আলোড়ন পড়েছে। আশেকার অভিযোগ, আমি ১২ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ ডেসিমাল জায়গা সহ একটি পুরনো বাড়ি কিনেছিলাম। আমার ৩ ডেসিমাল জায়গার মধ্যে দু’টি তালগাছ রয়েছে। সম্প্রতি আমার ওই বাড়ির পাশে একটি পুকুর বেআইনিভাবে ভরাট করে রাস্তার নির্মাণ চলছে। আমি কর্মসূত্রে বাড়ির বাইরে থাকায় ওই রাস্তা নির্মাণের জন্য গত ২ ফেব্রুয়ারি আমার বাড়ির পাশে থাকা দু’টি তাল গাছ কেটে দিয়েছে। আমি বাড়ি ফিরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও তাঁর স্বামী সহ কয়েক জন এতে জড়িত। আমার ওই জমি দখল করার চেষ্টা হচ্ছে। তাই আমি আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছি।’’

যদিও আশেকার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তমলুক শহর তৃণমূলের প্রাক্তন সভাপতি তথা জেলা তৃণমূলের সাধারণ সাধারণ সম্পাদক দিব্যেন্দু রায়। তিনি বলেন, ‘‘আশেকা যে জায়গা নিজের বলে দাবি করছেন তা নিয়ে স্থানীয় এক পরিবারের সাথে মামলা চলছে। আশেকা ওই জায়গা দিয়ে বাড়িতে বিদ্যুতের লাইন টানার জন্য পুরসভার সাহায্য চাইতে সম্প্রতি উপ-পুরপ্রধান লীনার কাছে এসেছিলেন।কিন্তু জায়গা নিয়ে মামলা থাকায় এবিষয়ে হস্তক্ষেপ করা হবে না বলে জানানো হয়েছিল। ওই মামলা মেটানোর পরে আসার জন্য বলা হয়েছিল। কিন্তু তারপরেই আমাদের বিরুদ্ধে আশেকা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানতে পেরেছি। ওই রাস্তা নির্মাণ ও গাছ কাটার সাথে আমাদের কোনও সম্পর্ক নেই।’’

দিব্যেন্দুর অভিযোগ, ‘‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমাদের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে।পুলিশের তদন্তেই তা প্রমাণ হবে।’’ তমলুক থানার পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগ খতিয়েদেখা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Tamluk Municipality Vice Chairman
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE