Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Dengue Death

সাফাইয়ে নেই নজর, কুপার্সে মৃত্যু ডেঙ্গিতে

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কুপার্স শহরে দীর্ঘ দিন নিকাশি নালা পরিষ্কার হয় না। বিভিন্ন জায়গায় জঞ্জালের স্তূপ জমে রয়েছে। শহরে মশা ও পোকামাকড়ের উপদ্রব বেড়েছে।

বগুলা হসপিটালে মেঝেতে রোগীরা। নদিয়ার বগুলায় । ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩।

বগুলা হসপিটালে মেঝেতে রোগীরা। নদিয়ার বগুলায় । ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩। ছবি : সুদীপ ভট্টাচার্য।

নিজস্ব সংবাদদাতা
রানাঘাট শেষ আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৭:৫৫
Share: Save:

ডেঙ্গিতে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। শেষ চার মাসে এ নিয়ে নদিয়ায় ডেঙ্গিতে মৃত্যু হয়েছে আট জনের। তাঁদের মধ্যে সাত জন রানাঘাট মহকুমার বাসিন্দা। অভিযোগ, শহর ও গ্রামীণ এলাকায় ক্রমশ ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও বিভিন্ন এলাকায় জঞ্জাল ও নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতিতে তেমন কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি।

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকাল ৭টায় রানাঘাট মহকুমা হাসপাতালে ডেঙ্গি আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। মৃতের নাম তারক সরকার (৪৪)। বাড়ি কুপার্স পুরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডে। গত ৪ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ জ্বর নিয়ে রানাঘাট মহকুমা হাসপাতালে তিনি ভর্তি হন। বুধবার সকাল ৭টায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, পরীক্ষায় তারকের ডেঙ্গি ধরা পড়ে। মৃত ব্যক্তি অন্য আনুষঙ্গিক রোগে আক্রান্ত ছিলেন না।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তারক কুড়ি বছর ধরে কুপার্স পুরসভার বিদ্যুৎ বিভাগে অস্থায়ী কর্মী হিসেবে কাজ করতেন। তারেকের স্ত্রী রীনা সরকার বলেন, "মৃত্যুর এক ঘণ্টা আগে স্বামী হাসপাতাল থেকে নিজে আমাকে ফোন করেছিল। ফোন পেয়ে আমি হাসপাতালে ছুটে যাই। তার পর কী করে কী হল, কিছুই বুঝতে পারছি না। আমার সবকিছু শেষ হয়ে গেল।"

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কুপার্স শহরে দীর্ঘ দিন নিকাশি নালা পরিষ্কার হয় না। বিভিন্ন জায়গায় জঞ্জালের স্তূপ জমে রয়েছে। শহরে মশা ও পোকামাকড়ের উপদ্রব বেড়েছে। পুরসভা বোর্ডের মেয়াদ বছর খানেক আগে উত্তীর্ণ হলেও, নতুন করে নির্বাচন হয়নি। তাই ন্যূনতম নাগরিক পরিষেবার মেলে না। পুরসভার সূত্রে খবর, গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে পুরসভা বোর্ডের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। তখন থেকেই পুরসভার জঞ্জাল পরিষ্কারের কাজের সঙ্গে যুক্ত ২১২ জন অস্থায়ী কর্মী কাজ হারিয়েছেন। হাতেগোনা মাত্র কয়েকজন স্থায়ী কর্মীকে দিয়ে কোনও মতে চলছে পুরসভার কাজ। তা ছাড়া পুরসভার প্রায় ২১ হাজার বাসিন্দাদের জন্য ডেঙ্গি পরীক্ষার কোনও ব্যবস্থা পুরসভার স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নেই।

বিষয়টি নিয়ে রানাঘাটের মহকুমা শাসক আগরওয়াল বলেন, "পুরসভার নির্বাচন কবে হবে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে ডেঙ্গি পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব রকম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কুপার্স শহর লাগোয়া একটি খাল সংস্কার করছে সেচ দফতর। তা ছাড়া বিভিন্ন জায়গায় ২৪ ঘণ্টা ফিভার ক্লিনিকও খোলার ব্যবস্থা হয়েছে।"

শেষ চার মাসে কুপার্স শহরের বহু বাসিন্দা ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হলেও, সরকারি তথ্য অনুযায়ী আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ১৩ জন। এ বছরই এই প্রথম ডেঙ্গিতে মৃত্যু হয়েছে। আবার নদিয়া জেলার ডেঙ্গির নোডাল অফিসার রিজয়ান ওয়াহাব বলেন, "এ বছর জেলার দশটি পুরসভা ও ১৮টি ব্লকে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে তিন হাজার।''

পুরসভার বোর্ড না-থাকায় সমস্যা যে রয়েছে তা স্বীকার করে নিয়েছেন বিদায়ী পুরপ্রধান শিবু বাইন। তাঁর কথায়, " প্রতিটি ওয়ার্ডে জনপ্রতিনিধিদের
যে ভূমিকা রয়েছে, তা কখনই প্রশাসক হিসেবে এক জনের পক্ষে করা সম্ভব নয়। বোর্ড না-থাকার কারণে স্বাভাবিক ভাবেই নাগরিক পরিষেবায় ছেদ পড়েছে।"

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE