Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

৩৫ দিন পরে, আজ খুলছে আদালত

বুধবারও জঙ্গিপুর উপ সংশোধনাগার থেকে পুলিশের দু’টি গাড়িতে ২৫ জন বিচারাধীন বন্দিকে নিয়ে আসা হয়েছিল আদালতে। এ দিনও তারা গাড়ি থেকে নামতে রাজি ছি

নিজস্ব সংবাদদাতা
জঙ্গিপুর ৩০ মে ২০১৯ ০২:৫১
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

আদালতে বিচারাধীন বন্দিদের চরম বিক্ষোভের পর জঙ্গিপুর আদালতের আইনজীবীরা কর্মবিরতি তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলেন বুধবার। এ দিন আদালতে বার অ্যাশোসিয়েশনের এক সভায় কর্মবিরতি প্রত্যাহারের এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান জঙ্গিপুরের সরকারি আইনজীবী সমীর চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “বুধবার কর্মবিরতি তুলে নেওয়া হলেও কাজ শুরু করা হবে বৃহস্পতিবার থেকে।”

বুধবারও জঙ্গিপুর উপ সংশোধনাগার থেকে পুলিশের দু’টি গাড়িতে ২৫ জন বিচারাধীন বন্দিকে নিয়ে আসা হয়েছিল আদালতে। এ দিনও তারা গাড়ি থেকে নামতে রাজি ছিলেন না তারা। জামিনের দাবিতে শুরু হয় হট্টগোল। পুলিশি হস্তক্ষেপে ঘটনা অবশ্য বেশিদুর এগোয়নি।

বিচারাধীন বন্দিদের অভিযোগ, এক মাস ধরে আইনজীবীরা কাজ করছেন না। ফলে জামিন যোগ্যরাও পাচ্ছেন না জামিন। এ দিকে জেলের মধ্যে স্থানাভাব। দুঃসহ গরমে কোনওক্রমে গাদাগাদি করে কাটাতে হচ্ছে তাদের। বিক্ষোভকারীদের দাবি, রাজ্যের বেশির ভাগ আদালতে কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। অথচ জঙ্গিপুর আদালতে এখনও কর্মহীন অবস্থা চলছে। মঙ্গলবার এই প্রতিবাদের জেরেই এ দিন বার অ্যাসোসিয়েশন কর্মবিরতি তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানালেও সঙ্গে জুড়ে দেয় লেজুড়— কাজ শুরু হবে বৃহস্পতিবার।

Advertisement

হাওড়া কান্ডের ঘটনার জেরে ২৬ এপ্রিল থেকে রাজ্য জুড়ে আইনজীবীদের কর্মবিরতি শুরু হয় রাজ্য বার কাউন্সিলের নির্দেশে। গত সপ্তাহেই বার কাউন্সিল কর্মবিরতি তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেই নির্দেশ মত মুর্শিদাবাদ জেলার সমস্ত আদালতেই আইনজীবীরা কাজ শুরু করেছেন। কিন্তু জঙ্গিপুর আদালতের আইনজীবীরা সে কর্মবিরতি প্রত্যাহার করতে রাজি ছিলেন না। জঙ্গিপুর বার অ্যাশোসিয়েশনের সম্পাদক মুর্শেদ জাহাঙ্গির বলেন, “বার কাউন্সিল আইনজীবীদের কর্মবিরতি তুলে নিতে যে নির্দেশ দিয়েছেন তার প্রতিবাদ করেই তো জঙ্গিপুরের আইনজীবীরা কর্মবিরতি চালিয়ে যাচ্ছিলেন।” আর তারই সূত্র ধরে জামিন অধরাই থেকে যাচ্ছে বিচারাধীন বন্দিদের।

বার বার সংশোধনাগার থেকে আদালতে এনেও জামিন না হওয়ায় তাদের ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার তার জেরেই গাড়ি থেকে না নেমে প্রিজন ভ্যান থেকেই হইচই শুরু করেন অভিযুক্তেরা।

তার জেরেই তড়িঘড়ি আলোচনায় বসে জঙ্গিপুর বার অ্যাশোসিয়েশন। বুধবার, তাদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেন তাঁরা— কর্মবিরতি তুলে নেওয়া হল। তবে কাজ শুরু হবে বৃহস্পতিবার থেকে। এ দিন সিদ্ধান্তের কথা শুনে আদালতের লকআপে থেকেই বন্দিরা উল্লাসে ফেটে পড়েন। তবে, আইনজীবীরা কাজ না করায় জামিন পাওয়ার আশা নেই জেনে ফের ভেঙে পড়েন আদালতে আসা অভিযুক্তদের পরিজনেরা। বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ অভিযুক্তদের সকলকেই ফের জঙ্গিপুর উপ সংশোধনাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন

Advertisement