Advertisement
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
TMC Inner clash

এলাকা দখল ঘিরে বিবাদ শাসক দলের দুই গোষ্ঠীর, মুর্শিদাবাদের ধুলিয়ানে বোমাবাজি, চলল গুলিও

মুর্শিদাবাদে তৃণমূল পরিচালিত ধুলিয়ান পুরসভার চেয়ারম্যানের আত্মীয়দের বিরুদ্ধে এলাকা দখলের লক্ষ্যে বোমাবাজির অভিযোগ করেছেন তৃণমূলেরই স্থানীয় কাউন্সিলর। গুলি চালানোরও অভিযোগ উঠেছে।

ধুলিয়ানের রাস্তায় পড়ে থাকা গুলির খোল।

ধুলিয়ানের রাস্তায় পড়ে থাকা গুলির খোল। — নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
শমসেরগঞ্জ শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ১১:৩০
Share: Save:

দুই গোষ্ঠীই শাসক দল তৃণমূলের সমর্থক। এলাকার দখল নিয়ে সেই দুই গোষ্ঠীর গোলমালেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল মুর্শিদাবাদের ধুলিয়ান। লড়াই এ বার পুরসভার চেয়ারম্যান বনাম কাউন্সিলরের। প্রকাশ্যে বোমাবাজি, এমন কি গুলিও চালানো হয় বলে অভিযোগ তুলেছেন শাসক দলের কাউন্সিলর। তাঁর অভিযোগের তির পুরসভার চেয়ারম্যানের আত্মীয়দের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় পুলিশ। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এলেও, এলাকা থমথমে। ঘটনায় পাঁচ জনকে আটক করেছে শমশেরগঞ্জ থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মুর্শিদাবাদের ধূলিয়ান পুরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সোমবার মধ্যরাত নাগাদ বোমাবাজি শুরু হয়। অভিযোগ ওঠে, ধুলিয়ান পুরসভার চেয়ারম্যানের অনুগামী ও আত্মীয়দের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে গিয়ে তাঁর লোকজন বোমাবাজি করেন, গুলি চালান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। দু’পক্ষের পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী।

ধুলিয়ান পুরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পারভেজ আলমের অভিযোগ, পুলিশের সামনেই বোমা ছোড়া হয়। তিনি বলেন, ‘‘আমার বাড়ির সামনে এ সব হলে, সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায়? যাঁরা হামলা করেছেন সকলেই আমাদের চেয়ারম্যানের আত্মীয়।’’ জঙ্গিপুর পুলিশ জেলার সুপার আনন্দ রায় বলেন, ‘‘একটি ফাঁকা রাস্তায় দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে গন্ডগোল হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছায়। কয়েক জনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE