Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পঞ্জাবে উদ্ধার হওয়া পরিযায়ী শ্রমিক এবং তাঁর ছেলেদের দেহ এল ইটাহারে

পাঞ্জাবের ফরিদকোট থানা এলাকায় নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করতেন মঙলু। বছর চারেক আগে স্ত্রী, দুই ছেলে এবং এক মেয়েকে নিয়ে সেখানে কাজ করতে গিয়েছিলেন ত

নিজস্ব সংবাদদাতা
ইটাহার ০২ জুলাই ২০২১ ১৬:৪৯
দেহ এসেছে গ্রামে।

দেহ এসেছে গ্রামে।
নিজস্ব চিত্র।

উত্তর দিনাজপুর জেলার ইটাহার থেকে কাজ করতে সপরিবারে পঞ্জাবে গিয়েছিলেন মঙলু শেখ (৩৫) নামের এক ব্যক্তি। সেখানে সম্প্রতি মঙলু এবং তাঁর দুই ছেলে খুন হন বলে অভিযোগ। তিনজনকে খুনের অভিযোগ উঠেছে মঙলুর স্ত্রীর বিরুদ্ধে। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, পঞ্জাবে গিয়ে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিলেন মঙলুর স্ত্রী। তা জানতেই খুন করা হয়েছে মঙলু এবং তাঁর ছেলেদের। শুক্রবার পঞ্জাব থেকে ওই তিন জনের দেহ এসেছে ইটাহার থানার অন্তর্গত সুরুন-২ পঞ্চায়েতের পালইবাড়ি গ্রামে।

পঞ্জাবের ফরিদকোট থানা এলাকায় নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করতেন মঙলু। বছর চারেক আগে স্ত্রী, দুই ছেলে এবং এক মেয়েকে নিয়ে সেখানে কাজ করতে গিয়েছিলেন তিনি। গত সোমবার কর্মস্থলে দুই ছেলে এবং মঙলুর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। তাঁর দুই ছেলের নাম মহম্মদ আলি (৮), মহম্মদ সোয়েল (৬)। এই ঘটনায় মঙলুর স্ত্রী-সহ দু’জনকে পঞ্জাব পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement


ওই গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দা এবং পরিজনদের দাবি, মঙলুর স্ত্রী পাঞ্জাবে পরকীয়ায় লিপ্ত ছিলেন। দিন কয়েক আগে মঙলু তা হাতেনাতে ধরে ফেলায় তাঁদের মধ্যে বিবাদও হয়েছিল। সে জন্যই মঙলু এবং তাঁর সন্তানদের খুন হতে হয়েছে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন

Advertisement