Advertisement
২০ জুন ২০২৪
Goutam Deb

জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারে সংগঠন ‘দেখবেন’ মেয়র গৌতম

জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার— দুই জেলাতেই তৃণমূলের ঘরে স্বস্তি নেই। জলপাইগুড়িতে বার বার প্রকাশ্যে এসেছে ‘গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব’। আলিপুরদুয়ারে প্রবীণ নেতারা প্রকাশ্যে নিজেদের অভিমানের কথা জানাচ্ছেন।

goutam deb

শিলিগুড়ির মেয়র গৌতম দেব। ফাইল চিত্র।

অনির্বাণ রায়
জলপাইগুড়ি শেষ আপডেট: ১৯ মার্চ ২০২৩ ০৭:৫৮
Share: Save:

পঞ্চায়েতে ভোটের আগে, জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার জেলায় তৃণমূলের সংগঠনের ‘কাজ দেখবেন’ শিলিগুড়ির মেয়র গৌতম দেব। গত শুক্রবার কলকাতায় তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠকে নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ থেকে এমনই নির্দেশ পেয়েছেন জেলার নেতারা। শনিবার গৌতমও বলেন, “আমি দলনেত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ, তিনি আবার আমার উপরে আস্থা রেখে আলিপুরদুয়ার এবং জলপাইগুড়িতে দলের সংগঠন দেখার দায়িত্ব দিয়েছেন। দল অতীতেও যখন যা দায়িত্ব দিয়েছে, নিজের সবটুকু দিয়ে পালন করার চেষ্টা করেছি, এখনও করছি।”

ঘটনা হল জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার— দুই জেলাতেই তৃণমূলের ঘরে স্বস্তি নেই। জলপাইগুড়িতে বার বার প্রকাশ্যে এসেছে ‘গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব’। আলিপুরদুয়ারে প্রবীণ নেতারা প্রকাশ্যে নিজেদের অভিমানের কথা জানাচ্ছেন। দলের এই সব ‘দ্বন্দ্ব-অভিমান’ পঞ্চায়েত ভোটে প্রভাব ফেলবে বলে আশঙ্কা নিচুতলায়। এই পরিস্থিতিতে গৌতমকে দুই জেলা ‘দেখতে’ বলা তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। তৃণমূল সূত্রের খবর, দুই জেলার নেতাদের বেশির ভাগই গৌতমের কথা অমান্য করতে পারবেন না বলেই নেতৃ্ত্ব মনে করেন। এক সময়ে দলের উত্তরবঙ্গ কোর কমিটির মাথায় ছিলেন এই গৌতমই। জানা গিয়েছে, আগামী ২৫ মার্চ জলপাইগুড়িতে এবং পরের দিন আলিপুরদুয়ারে দলের জেলা নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসার কথা গৌতম দেবের।

বস্তুত, জলপাইগুড়ি জেলার ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জিতে গৌতম দু’বার মন্ত্রী হয়েছেন। এই জেলা কমিটিতেও ছিলেন গৌতম। নতুন করে জেলা কমিটি গঠনের যে প্রস্তাব গিয়েছে, তাতেও গৌতমের নাম রয়েছে বলে দাবি। গত বিধানসভা ভোটের আগে, দলে যখন ‘দ্বন্দ্ব’ চরমে উঠেছিল, সে সময়ে জলপাইগুড়িতে এসে সাংগঠনিক বৈঠক করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জলপাইগুড়িতে দল ‘দেখা’র ভার গৌতমকে দিয়েছিলেন। যদিও সংগঠনের কাজ কত দূর পর্যন্ত ‘দেখবেন’ গৌতম, দলের অন্দরে তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে।

এক সময়ে তৃণমূলে পর্যবেক্ষক ছিল। এ বার পর্যবেক্ষক নিয়োগ হয়নি, শুধু ‘দেখা’র দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এক জেলা নেতার কথায়, “দেখা-র মানে তো সবটুকুই দেখতে হবে। জেলা কমিটির মাথায় গৌতম দেবকে বসানো হল।” যদিও আর এক পক্ষের দাবি, ‘দেখা’-র অর্থ হল সমন্বয়ের কাজ করা, জেলা কমিটি স্বাধীন ভাবেই কাজ করবে। গৌতম নিজে বলেন, “জেলা নেতাদের সবার সঙ্গে বৈঠক করব প্রথমে। তার পরে, দল যেমন নির্দেশ দেবে, তেমন ভাবেই কাজ করব।”

জলপাইগুড়ি জেলা তৃণমূল সভাপতি মহুয়া গোপ বলেন, “গৌতমদার সঙ্গে কথা হয়েছে। ওঁর মতো অভিজ্ঞ নেতার পরামর্শ পেলে তো ভালই হবে। গৌতমদাকে তো জলপাইগুড়ি জেলার বৈঠকেও আমরা ডাকি।” তৃণমূলের আলিপুরদুয়ার জেলা সভাপতি প্রকাশ চিকবরাইক বলেন, “আগামী ২৬ মার্চ গৌতম দেব আলিপুরদুয়ারে এসে দলের নেতাদের নিয়ে বৈঠক করবেন। বৈঠকে জেলার নেতাদের পাশাপাশি, ব্লকের নেতাদেরও ডাকা হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Goutam Deb Jalpaiguri TMC Alipurduar
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE