Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১২ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

শ্রমিক মেলার উদ্বোধনে বিরোধীদের সমালোচনা

মন্ত্রীকে পাল্টা বিঁধতে ছাড়লেন না জেলার বিজেপি নেতারা।

নিজস্ব সংবাদদাতা 
আলিপুরদুয়ার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ০২:১৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
অংশীদার: আলিপুরদুয়ারে শ্রমিক মেলায় সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের চেক প্রদান। মঙ্গলবার। ছবি: নারায়ণ দে

অংশীদার: আলিপুরদুয়ারে শ্রমিক মেলায় সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের চেক প্রদান। মঙ্গলবার। ছবি: নারায়ণ দে

Popup Close

মঙ্গলবার আলিপুরদুয়ারে শুরু হওয়া শ্রমিক মেলার সরকারি মঞ্চ থেকে বিরোধীদের কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক। যা নিয়ে মন্ত্রীকে পাল্টা বিঁধতে ছাড়লেন না জেলার বিজেপি নেতারা।

এ দিন আলিপুরদুয়ার ইন্ডোর স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে দু’দিনের শ্রমিক মেলা। মেলার উদ্বোধন করেন রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক। শ্রমমন্ত্রী ছাড়াও অনুষ্ঠানে উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, এসজেডিএ চেয়ারম্যান এবং বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী, জেলা পরিষদের মেন্টর ও জেলা তৃণমূল সভাপতি মোহন শর্মা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মেলার উদ্বোধনের পর শ্রমিকদের স্বার্থে রাজ্যের তৃণমূল সরকারের নানান প্রকল্পের কথা উল্লেখ করতে গিয়ে প্রথমেই মলয়বাবু কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন বামেদের। শ্রমমন্ত্রীর কথায়, বামেরা নিজেদেরকে শ্রমিক দরদী বলে দাবি করতো। অথচ ২০০০ সালে রাজ্যে শ্রমিকদের জন্য সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প চালু হয়। তারপরের ১১ বছরে ক্ষমতায় থেকে এই প্রকল্পে ন’কোটি টাকা অনুদান ধার্য করেছিল বাম সরকার। আর তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর, গত আট বছরে এই প্রকল্পে এক হাজার ৩০০ কোটি টাকা অনুদান ধার্য করেছে রাজ্য সরকার।

এর পর বিজেপিকে, বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি। শ্রমমন্ত্রী বলেন, “মানুষকে ধাপ্পা দিয়ে সাড়ে চার বছর আগে কেন্দ্রে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি। তাই মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ২০১৯ সালের পর নরেন্দ্র মোদী আর প্রধানমন্ত্রী থাকবেন না।”

Advertisement

ময়নাগুড়ির সভা থেকে সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন করা নিয়েও প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করেন তিনি। মলয়বাবু বলেন, “সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধন, এটি বিচার বিভাগের বিষয়। একটা দলীয় সভায় উপস্থিত থেকে যা উদ্বোধন করা যায় না।” একই সঙ্গে আগামী ৯ মার্চ সার্কিট বেঞ্চ উদ্বোধন ও ১১ মার্চ থেকে বেঞ্চের কাজ শুরু হয়ে যাবে বলেও এ দিন জানান তিনি।

সরকারি মঞ্চে বিরোধীদের সমালোচনা করায় মন্ত্রীকেও এ দিন পাল্টা বিঁধেছেন বিজেপির জেলা নেতারা। দলের জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মার অভিযোগ, “আসলে তৃণমূল দলটার কোনও সংস্কার বা সৌজন্য নেই। তাই সরকারি মঞ্চে দাঁড়িয়েও তাঁদের মন্ত্রীরা রাজনীতি করেন।”

শ্রম দফতর সূত্রের খবর, দু’দিনব্যাপী চলা এই মেলায় সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের অধীনে ৭০৮ জন শ্রমিককে ৭২ লক্ষ ৭৯ হাজার টাকার অনুদান দেওয়া হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement