Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Indo-Bangladesh Border: কাঁটাতার পেরিয়ে টিকা আসবে কি, অনিশ্চয়তা

অনুপরতন মোহান্ত
হিলি ০২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৭:৩৯
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

গ্রামীণ হাসপাতালের টিকাকেন্দ্রে দীর্ঘ লাইন দিয়েও শেষ পর্যন্ত টিকা মেলেনি কাঁটাতারে ঘেরা দক্ষিণ দিনাজপুরের হিলি সীমান্তের গোবিন্দপুর এলাকার মর্জিনা বিবির। তাঁর মতো গ্রামের অধিকাংশ মহিলা ও পুরুষ ভিড়ের কথা শুনে টিকাকেন্দ্রমুখী হননি বলে অভিযোগ। তাঁদের বক্তব্য, কাঁটাতারের গেট থেকে বিএসএফের কাছে পরিচয়পত্র জমা রেখে তার পরে একদফা তল্লাশির পরে কেন্দ্রে গিয়ে কখন টিকা মিলবে, তার নিশ্চয়তা নেই। বিকেল ৫টার মধ্যে হাজিরা দিতে না পারলে কাঁটাতারের গেট বন্ধ। সে দিন আর গ্রামে ঢোকা যাবে না।

কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে বাংলাদেশের দিকে উন্মুক্ত ভারতভুক্ত হিলি ব্লকের শুধু গোবিন্দপুরই নয়, ওই সমস্যার কারণে টিকাকরণে পিছিয়ে হাড়িপুকুর, শ্রীরামপুর, বাসুদেবপুর, উজাল, জামালপুর, ডুমরনের মতো হিলি সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়ার বাইরে মূল ভারত-ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন অন্তত ১৪টি গ্রামের মানুষ।

বিএসএফের সময় ও শাসনে বাঁধা প্রায় বিচ্ছিন্ন দ্বীপের মতো ওই গ্রামের বাসিন্দারা সমস্যার কথা বিডিওকে বহু বার জানিয়েছেন। হিলি নাগরিক মঞ্চ থেকে টিকাকেন্দ্র বাড়ানোর দাবিও লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ মুখ ফিরিয়ে রয়েছেন বলে অভিযোগ। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের খবর, হিলি ব্লকের প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষের টিকা হলেও বাকি প্রায় ৪০ শতাংশ মানুষের মধ্যে অধিকাংশ রয়েছেন কাঁটাতারের বেড়ার বাইরে থাকা নাগরিকেরা। হিলির বিডিও অমিত দে মণ্ডল ফোন ধরেননি। তবে জেলাশাসক আয়েশা রানি বলেন, ‘‘ভিড়ে হয়রানি কমাতে বাড়িতে গিয়ে বাসিন্দাদের হাতে টিকার স্লিপ দেওয়া হবে। ওই স্লিপে লেখা নির্দিষ্ট দিন, সময় ও কেন্দ্রে গিয়ে বাসিন্দারা দ্রুত টিকা নিতে পারবেন।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement