Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

টেক্কা দিতে চষে বেড়াচ্ছেন নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৯ মে ২০১৮ ০১:১২
পথে: আনাড়ায় জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার। নিজস্ব চিত্র

পথে: আনাড়ায় জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার। নিজস্ব চিত্র

নেতাদের ভোট-সফরে সরগরম দুই জেলা।

কংগ্রেসের শক্তপোক্ত সংগঠন থাকা ঝালদা ২ ব্লকের কোটশিলা জিউদারু স্কুল সংলগ্ন ময়দানে মঙ্গলবার তৃণমূল সাংসদ মানস ভুঁইয়া অভিযোগ তুললেন, টানা ৪৬ বছর কংগ্রেসে থেকে উপেক্ষা ছাড়া কিছুই পাননি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদর্শে, তাঁর উন্নয়নের শরিক হতেই তিনি কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে এসেছেন।

গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে এই পঞ্চায়েত সমিতি দখল করে কংগ্রেস ও ফরওয়ার্ড ব্লক। সে কথা মাথায় রেখে মানসের কটাক্ষ, ‘‘ফরওয়ার্ড ব্লকের বাঘ এখন বিল্লি হয়ে গিয়েছে। আর কংগ্রস এখন পুরুলিয়ার এক কোণে অবস্থান করছে।’’

Advertisement

এই সভায় জেলা তৃণমূল সভাপতি শান্তিরাম মাহাতো অভিযোগ করেন, ‘‘এই পঞ্চায়েত সমিতি উন্নয়নের কাজ করতে ব্যর্থ হয়েছে।’’ তৃণমূল ক্ষমতায় এলে এই ব্লকের সমস্ত রাস্তা পাকা হবে বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন।’’ মানসবাবু পাড়া ব্লক সদর, পুরুলিয়া ২ ব্লকের হুটমুড়াতেও সভা করেন।

দলের দীর্ঘদিনের নেতা সদ্য প্রয়াত আদিত্য সিংহ মল্লের পরিবারের সঙ্গে এ দিন দেখা করতে মানবাজারে তাঁর বাড়িতে দুপুরে যান মানসবাবু। আদিত্যবাবুর স্ত্রী সুমিতা সিংহ মল্ল এ বার তৃণমূলের জেলা পরিষদের প্রার্থী।

তিনি বলেন, ‘‘সিপিএমের আমলে নির্যাতিত হয়েছিলেন আদিত্যবাবু। তাঁর মৃত্যুতে আমরা মর্মাহত। দলের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যয়ের নির্দেশে তাঁর বাড়িতে গিয়ে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছি।’’ ছিলেন জেলা সহ-সভাপতি রথীন্দ্রনাথ মাহাতোও। নিয়মকানুন সামলে কয়েক দিনের মধ্যে প্রচারে নামতে পারবেন বলে জানিয়েছেন সুমিতাদেবী।



মানবাজারে প্রয়াত নেতার বাড়িতে মানস ভুঁইয়া। মঙ্গলবার। নিজস্ব চিত্র

এ দিকে বাঁকুড়ার বারিকুলের মাজগেড়িয়ায় দলীয় প্রার্থীদের প্রচারের সভায় পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় কটাক্ষ করেন, ‘‘জঙ্গলমহল যখন অশান্ত ছিল তখন বিজেপির একটিও সভা করার ক্ষমতা ছিল না। তৃণমূল সরকার এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে এনেছে বলেই এখন ওরা সভা করতে পারছে। মানুষের আদালতে যেতে ভয় পাচ্ছে বিরোধীরা। তাই আদালতে গিয়ে মামলা করে পঞ্চায়েত ভোট পণ্ড করতে চাইছে।”

অন্যদিকে, এ দিন সারেঙ্গার গোয়ালবাড়ি এলাকায় পথসভা করে বিজেপি। উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য নেতা সুভাষ সরকার, দলের বাঁকুড়া সাংগঠনিক জেলা সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র সহ অনেকে। সুভাষবাবুর অভিযোগ, “রাজ্য জুড়ে অরাজকতা চালাচ্ছে তৃণমূল। সাধারণ মানুষ পঞ্চায়েত ভোটেই এর জবাব দেবেন”।

এ দিনই পাড়া থানার আনাড়াতে রোড শো করেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। সকাল ১০টা থেকে মিছিল শুরু হয়েছিল। ভাল ভিড় হওয়ার দাবি করেন বিজেপি কর্মীরা। পরে বিকালে জয় সভা করেন রঘুনাথপুর ২ ব্লকের নিলডি পঞ্চায়েত এলাকায়।

আরও পড়ুন

Advertisement