Advertisement
০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Suvendu Adhikari

Suvendu-Kunal: শুভেন্দুর আর্জি খারিজ, কুণালের করা মানহানির মামলায় সশরীরেই হাজিরা দিতে হবে আদালতে

বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে আদালতে মানহানির মামলা করেছিলেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। সেই নির্দেশ স্থগিত রেখেছিল আদালত।

শুভেন্দুর আইনজীবীরা আদালতে বিজেপি নেতাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে ছাড় দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন।

শুভেন্দুর আইনজীবীরা আদালতে বিজেপি নেতাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে ছাড় দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩১ অগস্ট ২০২২ ১১:২২
Share: Save:

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষের করা একটি মামলায় বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে সশরীরে আদালতে উপস্থিত থাকতে বললেন বিচারক। রাজ্যের বিরোধী নেতা শুভেন্দুর বিরুদ্ধে একটি মানহানির মামলা করেছিলেন কুণাল। সেই মামলায় শুভেন্দুকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে ছাড় দেওয়ার আর্জি জানিয়েছিলেন তাঁর আইনজীবী। বুধবার আদালত ওই মামলায় রায় দিয়েছে। ব্যাঙ্কশাল আদালতের বিচারক শুভেন্দুর আর্জি খারিজ করে জানিয়েছেন, শুভেন্দুকে এই মামলায় সশরীরে আদালতে উপস্থিত থাকতে হবে। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর শুভেন্দুর হাজিরার দিনও নির্দিষ্ট করে দিয়েছে আদালত।

Advertisement

কুণাল ঘোষকে ‘বাবার ত্যাজ্যপুত্র’ বলেছিলেন শুভেন্দু। বিজেপি নেতার সেই মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে মানহানির মামলা করেছিলেন কুণাল। মামলাটির শুনানি চলছিল ব্যাঙ্কশাল আদালতে। সেখানে শুভেন্দু আইনজীবীদের একটি বড় টিম এনে লড়েন। তাঁরাই আদালতে আর্জি করেছিলেন, শুভেন্দুকে এই মামলায় সশরীরে হাজিরা দেওয়া থেকে ছাড় দিতে। এ নিয়ে দীর্ঘ শুনানির নির্দেশ স্থগিত রেখেছিল আদালত। বুধবার ব্যাঙ্কশাল আদালতের বিচারক নির্দেশ দিলেন।

শুভেন্দুর পক্ষে আদালতে আইনজীবীদের যুক্তি ছিল, ‘‘যে হেতু ওঁর বাড়ি কাঁথি এবং তা কলকাতা থেকে বহু দূর, তাই সুপ্রিম কোর্টের পরামর্শ মেনে ওকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে ছাড় দেওয়া হোক।’’ এই যুক্তির পাল্টা যুক্তি দেখিয়ে কুণালের আইনজীবী অয়ন চক্রবর্তী বলেন, ‘‘ওঁর পিটিশনে লেখা উনি বিরোধী দলনেতা, বিধানসভায় বসেন, রাজনীতির জন্য সারা বাংলা ঘোরেন। তা হলে বিরোধী দলনেতার অফিস তো আদালত থেকে তিনশো মিটার দূরে। ওখানে এলে কোর্টে আসবেন না কেন? কোর্টকে গুরুত্ব না দেওয়ার এই প্রবণতা ঠিক নয়।’’ এর পরই কোর্ট শুভেন্দুর আবেদন খারিজ করে ২২ সেপ্টেম্বর সশরীরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.