Advertisement
০৫ অক্টোবর ২০২২
TET

TET Candidate Protest: কর্মপ্রার্থীদের জোড়া মিছিল ঘিরে ধুন্ধুমার

বেলা ১টা নাগাদ হাজরা মোড়ে জমায়েত হয়ে চাকরিপ্রার্থীরা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির দিকে পা বাড়াতেই পুলিশ তাঁদের আটকায়।

হাজরা মোড় থেকে বিক্ষোভকারী টেট উত্তীর্ণদের সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

হাজরা মোড় থেকে বিক্ষোভকারী টেট উত্তীর্ণদের সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। ছবি: দেবস্মিতা ভট্টাচার্য

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ জুন ২০২২ ০৫:৫৮
Share: Save:

এক দল বিক্ষোভকারীর গন্তব্য ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কালীঘাটের বাড়ি। অন্য এক দল বিক্ষোভকারী যেতে চাইছিলেন সল্টলেকে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অফিসে। তার আগেই, বেলা ১টা নাগাদ হাজরা মোড়ে এবং তার কিছু পরে সল্টলেকের করুণাময়ীতে মিছিল ঘিরে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে গেল বুধবার। দুই জায়গাতেই ২০১৪ সালে প্রাথমিক টেট পাশ, প্রশিক্ষিত কিন্তু ‘নট ইনক্লুডেড’ চাকরিপ্রার্থীদের জোড়া বিক্ষোভ-মিছিল থেকে গ্রেফতার করা হয় বহু চাকরিপ্রার্থীকে।

বেলা ১টা নাগাদ হাজরা মোড়ে জমায়েত হয়ে চাকরিপ্রার্থীরা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির দিকে পা বাড়াতেই পুলিশ তাঁদের আটকায়। পুলিশের সঙ্গে চাকরিপ্রার্থীদের ধস্তাধস্তিতে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় হাজরা মোড়ে। কিছু ক্ষণের জন্য যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অভিযোগ, পুলিশ টেনেহিঁচড়ে বিক্ষোভকারীদের প্রিজ়ন ভ্যানে তুলে নিয়ে যায়। সঙ্গীতা কোলে নামে এক চাকরিপ্রার্থীর অভিযোগ, ‘‘আমাদের পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গিয়েছে। দাবি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ডেপুটেশন দিতে গিয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের আটকে দেওয়া হল।’’

চাকরিপ্রার্থীদের অন্য একটি দল সল্টলেকের করুণাময়ীতে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অফিসে যেতে চাওয়ায় পুলিশ তাঁদের পথ আটকে দেয়। চাকরিপ্রার্থীরা জানান, তাঁদের কয়েক জন করুণাময়ী মেট্রো স্টেশন দিয়ে আসছিলেন। মেট্রো থেকে বেরোতেই কয়েক জনকে গ্রেফতার করা হয় বলে অভিযোগ। কয়েক জন জোর করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অফিসে যেতে গেলে তাঁদের আটকে দেয় পুলিশ। কেউ কেউ রাস্তায় বসে পড়েন। অভিযোগ, পুলিশ আধিকারিকেরা তাঁদের টেনেহিঁচড়ে গাড়িতে তুলে থানায় নিয়ে যান। চাকরিপ্রার্থীরা জানান, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে তাঁদের কয়েক জন আহত হয়েছেন। কয়েক জনের জামাকাপড় ছিঁড়ে যায়। সোমা কর নামে আসানসোল থেকে আসা এক চাকরিপ্রার্থীর হাত ভেঙে গিয়েছে। যদিও সমস্ত অভিযোগই অস্বীকার করেছে পুলিশ।

অচিন্ত্যপ্রসাদ সামন্ত নামে এক চাকরিপ্রার্থী বলেন, ‘‘২০২০ সালের ১১ নভেম্বর নবান্ন সভাঘরে সাংবাদিত বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট পাশ ২০ হাজার প্রশিক্ষিত প্রার্থীর মধ্যে প্রথমে ১৬ হাজার এবং পরে বাকিদের ধাপে ধাপে নিয়োগ করা হবে। দেড় বছর কেটে গেল, কিন্তু নিয়োগ হল না।’’

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তেফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.