Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Supreme Court of India

পরবর্তী শুনানির দিন ২১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের তালিকা চাই! রাজ্যকে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

আদালতের খবর, এর আগে ৬টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নাম ঠিক করতে নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। আরও ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে। মামলার পরবর্তী শুনানি শুক্রবার।

supreme court

সুপ্রিম কোর্ট। —ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ও নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৫ মে ২০২৪ ০৮:০২
Share: Save:

রাজ্যের ২১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নাম ঠিক করতে বলল সুপ্রিম কোর্ট। রাজ্যের অধীনস্থ বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে শীর্ষ আদালতে যে মামলা চলছে তাতে মঙ্গলবার বিচারপতি সূর্য কান্ত এবং বিচারপতি কে ভি বিশ্বনাথনের ডিভিশন বেঞ্চ মৌখিক ভাবে এ কথা জানিয়েছে। আদালতের খবর, এর আগে ৬টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নাম ঠিক করতে নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। এ দিন আরও ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম সেই তালিকায় যুক্ত হয়। আগামী শুক্রবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি। সে দিনই ওই ২১ জনের নামের তালিকা সুপ্রিম কোর্টে জমা দিতে বলা হয়েছে।

এ দিন রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির আচার্য তথা রাজ্যপালের আইনজীবীর উদ্দেশে বিচারপতি সূর্য কান্ত বলেন, ‘‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলি আমার, আপনার নয়। জনগণের। তাই যাবতীয় বিতর্ক ভুলে উপাচার্যদের নিয়োগ করতে হবে।’’ প্রসঙ্গত, রাজ্য নিজের পছন্দমতো উপাচার্য নিয়োগ করেছিল। সেই নিয়োগ বাতিল হওয়ার পরে রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস নিজের পছন্দমতো অন্তর্বর্তী উপাচার্য নিয়োগ করেন। রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতরের তালিকা না মেনে আচার্য নিজের পছন্দসই ব্যক্তিদের অন্তর্বর্তী উপাচার্য নিয়োগ করায় রাজভবন ও নবান্নের সংঘাত বাধে। সেই সংঘাতই শীর্ষ আদালতে গড়িয়েছে। আবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজের পছন্দ অনুযায়ী অধ্যাপক বুদ্ধদেব সাউকে অন্তর্বর্তী উপাচার্য পদে নিয়োগ করার পরে আচমকা তাঁকে সরিয়ে দেন রাজ্যপাল। তখন উচ্চ শিক্ষা দফতর বুদ্ধদেবের পাশে দাঁড়ায়।

এ দিন সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পরে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু নিজের এক্স-হ্যান্ডলে লিখেছেন যে আচার্যের আইনজীবী এই নির্দেশ লিখিত ভাবে রেকর্ড না করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। তবে এই প্রক্রিয়াকে স্থগিত করার সব চেষ্টা আদালত বানচাল করেছে। সন্ধ্যায় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের প্রতিলিপি প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে অবশ্য সবিস্তার নির্দেশের উল্লেখ নেই। তাতে বলা হয়েছে, দু’পক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য শোনার পরে ১৭ মে পরবর্তী শুনানির দিন স্থির করা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Supreme Court of India West Bengal Universities
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE