Advertisement
১০ ডিসেম্বর ২০২২
G20

জি-২০ দেশগুলির পর্যটন বৈঠক শিলিগুড়িতে

সূত্রের খবর, শুধু শিলিগুড়ি নয়, দেশের আরও তিনটি জায়গাকে বাছা হয়েছে পর্যটন শীর্ষ বৈঠকের জন্য। সেগুলি হল শ্রীনগর, গোয়া এবং কচ্ছের রণ। সারা বছর ধরে এই চার জায়গায় চারটি বৈঠক হতে পারে।

শিলিগুড়ির নাম চূড়ান্ত করে রাখা হয়েছে।

শিলিগুড়ির নাম চূড়ান্ত করে রাখা হয়েছে। প্রতীকী ছবি।

কৌশিক চৌধুরী
শিলিগুড়ি শেষ আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৮:০০
Share: Save:

সব কিছু ঠিক থাকলে, আগামী বছর শিলিগুড়িতে হতে চলেছে জি-২০ গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির পর্যটন বিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন। বিদেশ মন্ত্রক সূত্রের খবর, চলতি বছরের ১ ডিসেম্বর থেকে আগামী বছরের ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ভারত জি-২০ শীর্ষ বৈঠকের নেতৃত্বে থাকবে। সেখানে দেশের বিভিন্ন শহরে একাধিক শীর্ষ বৈঠক হওয়ার কথা। পর্যটন বিষয়ক আলোচনার জন্য বাছাই করা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং জেলাকে। বিদেশ মন্ত্রক মনে করছে, দেশের এই প্রান্তে দার্জিলিং জেলাই সমস্ত ধরনের পরিকাঠামোর দিক থেকে সেরা। তাই শিলিগুড়ির নাম চূ়ড়ান্ত করে রাখা হয়েছে।

Advertisement

সূত্রের খবর, শুধু শিলিগুড়ি নয়, দেশের আরও তিনটি জায়গাকে বাছা হয়েছে পর্যটন শীর্ষ বৈঠকের জন্য। সেগুলি হল শ্রীনগর, গোয়া এবং কচ্ছের রণ। সারা বছর ধরে এই চার জায়গায় চারটি বৈঠক হতে পারে। প্রশাসনের অন্দরের আলোচনা, এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন বিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন দার্জিলিং জেলায় নিয়ে আসার পিছনে রয়েছেন দেশের প্রাক্তন বিদেশসচিব তথা দার্জিলিঙের বাসিন্দা হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। তিনি এখন জি-২০ চিফ কো-অর্ডিনেটর।

বিদেশ মন্ত্রকের যুগ্মসচিব পর্যায়ের এক অফিসারের কথায়, ‘‘জি-২০ ভুক্ত দেশের প্রধানদের বৈঠক আগামী বছর ৯-১০ সেপ্টেম্বর নয়াদিল্লিতে হবে। তার আগেই বিভিন্ন শীর্ষ বৈঠক শেষ করা হবে। পর্যটন সংক্রান্ত বৈঠকের জন্য শিলিগুড়ির অদূরে চা বাগান ঘেরা একটি কনভেনশন সেন্টারকে প্রাথমিক ভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে।’’

সরকারি সূত্রের খবর, গত এপ্রিল মাসে বিদেশ মন্ত্রকের ১২ জন প্রতিনিধির একটি দল নয়াদিল্লি থেকে শিলিগুড়ি এসেছিল। তারা দার্জিলিং জেলার পাহাড়ি এবং সমতলের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখে। শেষে, সুকনা লাগোয়া চা বাগানের ভিতরে একটি পাঁচতারা চা পর্যটন সেন্টারকে প্রাথমিক ভাবে বাছাই করা হয়েছে। সেখানে ২০ হাজার স্কোয়ার ফুটের নতুন কনভেনশন সেন্টার তৈরি হয়েছে। তবে গোটা সফরসূচি গোপন রাখা হয়েছিল। পুলিশ-প্রশাসনের শীর্ষমহল ছাড়া, কেউ কিছু জানতে পারেনি। প্রতিনিধিদলটি নয়াদিল্লিতে ফিরে রিপোর্ট দেওয়ার পরে শিলিগুড়ির নাম তালিকায় উঠেছে।

Advertisement

রাজ্যের প্রশাসনিক কর্তারা মনে করছেন, জি-২০ পর্যায়ের সম্মেলন শিলিগুড়িতে হলে, গোটা বিশ্বের সামনে উত্তরবঙ্গের পর্যটন ও তার হাত ধরে অর্থনৈতিক বিকাশের দরজা নতুন করে খুলবে। বিনোদন-পার্ক, হোটেল, পর্যটনকেন্দ্র, চা বাগানে পর্যটন থেকে বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে বিদেশ থেকে বিনিয়োগের সম্ভাবনা বাড়বে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.