Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
TMC

দ্রৌপদীর সংবর্ধনায় ডাক পেয়েছেন বিজেপি নেতারা, শুভেন্দুর দাবি উড়িয়ে প্রমাণ দিল তৃণমূল

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারীকে আমন্ত্রণ না জানানো নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। শুভেন্দুর দাবি ওড়াল তৃণমূল।

photo of suvendu adhikari, Mamata Banerjee and Draupadi Murmu.

শুভেন্দুকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্র প্রাপ্তিস্বীকারের নথি প্রকাশ করেছে তৃণমূল। গ্রাফিক: সনৎ সিংহ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ মার্চ ২০২৩ ১৭:৫৬
Share: Save:

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বলে পাল্টা দাবি করল তৃণমূল। সোমবার বিকেলে নেতাজি ইন্ডোরে রাষ্ট্রপতিকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে দাবি করেছিলেন বিরোধী দলনেতা। শুভেন্দুর এই দাবি নস্যাৎ করে বিরোধী দলনেতাকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্র প্রাপ্তিস্বীকারের নথি প্রকাশ করেছে তৃণমূল। যদিও বিরোধী দলনেতার দফতর থেকে পাল্টা দাবি করা হয়েছে, শাসকদলের প্রকাশ করা ওই নথি ‘ভুয়ো’। এর তদন্তেরও দাবি তুলেছে তারা। বিজেপির একাংশও একই দাবি করেছে।

সোমবার কলকাতায় যখন রাষ্ট্রপতি পা রেখেছেন, সেই সময় দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডার সঙ্গে বৈঠক করেছেন শুভেন্দু। এর পর দুই সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় এবং সৌমিত্র খাঁকে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন শুভেন্দু। সেখানেই দাবি করেন যে, রাষ্ট্রপতিকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। এই প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তৃণমূলের অবস্থান কী ছিল, তা স্মরণ করিয়ে শুভেন্দু বলেন, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লোকেরা দ্রৌপদী মুর্মুকে ভোট দেননি। যাঁরা ভোট দেননি, তাঁরা আজ তাঁকে ধামসা-মাদল উপহার দিচ্ছেন, ফুল দিচ্ছেন, শাল পরাচ্ছেন। আর বিজেপির যে ৭০ জন বিধায়ক ভোট দিয়েছেন, তাঁরা আমন্ত্রণ পাননি।’’

শুভেন্দুর এই মন্তব্যের পর আসরে নেমেছে তৃণমূল। শুভেন্দুকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্র প্রাপ্তিস্বীকারের নথি-সহ টুইট করেছে জোড়াফুল শিবির। সেখানে লেখা হয়েছে, ‘‘বিজেপি নেতারা দাবি করেছেন, রাষ্ট্রপতিকে নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তাঁদের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। আসল সত্যিটা এখানে রয়েছে।’’ এই লেখার সঙ্গেই আমন্ত্রণপত্র প্রাপ্তিস্বীকারের নথির ছবি টুইট করা হয়েছে। শাহ এবং নড্ডার সঙ্গে কেন শুভেন্দু সোমবার বৈঠকে বসেছিলেন, সে নিয়েও কটাক্ষ করেছে তৃণমূল। টুইটারে তারা লিখেছে, সাংবাদিক বৈঠকে কী মিথ্যা ছড়াবে, সেই নিয়েই আলোচনা করতে বৈঠক হয়েছে।

শুভেন্দুকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্রের প্রমাণ হিসাবে যে নথি তুলে ধরেছে তৃণমূল, সেই নথির সত্যতা নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন তুলেছে বিরোধী দলনেতার দফতর। তাদের দাবি, এই ধরনের আমন্ত্রণপত্রে সরকারের ‘মেসেঞ্জার’ (প্রেরক) হিসাবে এক জনের নাম থাকে। একই সঙ্গে আমন্ত্রণপত্রটি কে গ্রহণ করছেন, তাঁর তারিখ-সহ সই থাকে। শুভেন্দুকে যে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে বলে দাবি করেছে তৃণমূল, তাতে প্রেরক এবং যিনি গ্রহণ করেছেন তাঁর নাম নেই। এই সূত্রেই বিরোধী দলনেতার দফতরের তরফে পাল্টা দাবি করা হয়েছে, সেটি ভুয়ো এবং মানুষকে বিভ্রান্ত করতে এই নথির ছবি টুইট করেছে বাংলার শাসকদল। এই নিয়ে তদন্তের দাবি জানিয়েছে বিরোধী দলনেতার দফতর।

শুভেন্দুর পাশাপাশি বিজেপির সর্বভারতীয়-সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে পাঠানো আমন্ত্রণ প্রাপ্তিস্বীকারের নথির ছবি টুইট করেছে তৃণমূল, তাতে অবশ্য প্রেরক এবং যিনি আমন্ত্রণপত্রটি গ্রহণ করেছেন, তাঁর সই-সহ তারিখ রয়েছে। বিজেপির তরফে দাবি করা হয়েছে, সুকান্ত এবং দিলীপকে পাঠানো আমন্ত্রণ প্রাপ্তিস্বীকারের যে নথি তৃণমূল টুইট করেছে, তা সঠিক। তবে শুভেন্দুকে পাঠানো আমন্ত্রণ প্রাপ্তিস্বীকারের নথি ভুয়ো।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE