Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Manik Bhattacharya

পৈতে, আংটি, মাদুলি ইডির হাতে জমা! ফেরত দিতে বলুন, আদালতে আর্জি তৃণমূল বিধায়ক মানিকের

মঙ্গলবার প্রাথমিকে নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানিতে কলকাতার বিচারভবনে হাজির করানো হয় মানিককে। সেখানে তিনি পৈতে, আংটি, মাদুলি-সহ গলার চেন ফেরত চান। জানান, সে সব রয়েছে ইডির দফতরে।

Image of Manik Bhattacharya

মানিক ভট্টাচার্য। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৫:২০
Share: Save:

গ্রেফতারির সময় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) নিয়ে নিয়েছিল পৈতে, আংটি, মাদুলি-সহ গলার চেন। মঙ্গলবার আদালতে দাঁড়িয়ে সে সবই ফেরত চাইলেন নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে ধৃত বিধায়ক মানিক ভট্টাচার্য। তৃণমূল বিধায়ক জানান, অনেক বারই সে সব ফেরত চেয়েছেন। ইডির আধিকারিকেরা বিষয়টি জানেন। কিন্তু তিনি এখনও কিছুই ফেরত পাননি। আদালতের মাধ্যমে এ বার সে সমস্ত ফেরত চাইলেন মানিক।

মঙ্গলবার ছিল প্রাথমিকে নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানি। সে কারণে কলকাতার বিচারভবনে হাজির করানো হয়েছিল মানিককে। সেখানেই তিনি পৈতে, আংটি, মাদুলি-সহ গলার চেন ফেরত চান। মানিক জানান, তাঁর কিছু ব্যক্তিগত জিনিস ইডির অফিসে রয়েছে। তাঁর কথায়, ‘‘আমাকে যে দিন গ্রেফতার করা হয়েছিল, ওই দিন রাতে ওঁরা নিয়ে ছিলেন।’’ এর পরেই বিচারক প্রশ্ন করেন, তা হলে এত দিন পর কেন মানিকের সে কথা মনে পড়ল? জবাবে মানিক বলেন, ‘‘আমি ওঁদের অনেক বার বলেছি। মিথিলেশ মিশ্র, বিজয় কুমার (তদন্তকারী অফিসার) এটা জানেন। ওঁরা গ্রেফতারির দিন ওই জিনিসগুলি নিয়ে আলমারিতে রেখে দিয়েছিলেন। তার পর প্রায় ১০ বার ফেরত চাওয়ার পরেও দেননি।’’

বিচারপতি এই সংক্রান্ত বিষয়ে সঠিক ভাবে আবেদন করতে বলেছেন মানিককে। পলাশিপাড়ার বিধায়ক জানিয়েছেন, তিনি পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি)-কে বলেছেন। বিচারক বলেন, ‘‘তা হলে আমাকে আবার বলছেন কেন? নির্দিষ্ট ফোরামে জানান।’’ মানিক পরে আদালত চত্বরে জানিয়েছেন, ওই সব জিনিস বাজেয়াপ্ত করার তালিকা (সিজার লিস্ট)-য় দেখানো হয়নি। একটি ক্লিয়ার ফাইলে আংটি, গলার চেন-সহ ছ’-সাতটি জিনিস আলমারিতে রাখা হয়েছ্লি। তাঁকে এই সংক্রান্ত কোনও নথিও দেওয়া হয়নি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE