Advertisement
০২ অক্টোবর ২০২২
Mamata Banerjee

Mamata Bandyopadhyay: ‘টিএমসি মানে টেম্পল, মস্ক, চার্চ’! গোয়ায় সম্প্রীতি, সংস্কৃতি, খেলায় জোর দিলেন মমতা

শুক্রবার গোয়ায় ছিল মমতার প্রথম রাজনৈতিক সভা। সেখানেই তৃণমূলের সম্প্রীতি এবং ধর্ম নিরপেক্ষ অবস্থানকে স্পষ্ট করে তুলে ধরলেন মমতা।

গোয়ায় সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার

গোয়ায় সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার টুইটার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৯ অক্টোবর ২০২১ ১২:৫৯
Share: Save:

‘টিএমসি’-র নতুন নাম পাওয়া গেল। নাম দিলেন স্বয়ং তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টিএমসি আর এখন শুধু তৃণমূল কংগ্রেস নয়। নতুন ব্যখ্যায় টিএমসি হল ‘টেম্পল-মস্ক-চার্চ’। অর্থাৎ মন্দির, মসজিদ এবং গির্জা। ভারতের সম্প্রীতি, ধর্মীয় ঐক্যের প্রতিভূ। এমনই ব্যাখ্যা তৃণমূলনেত্রীর।

শুক্রবার গোয়ায় ছিল মমতার প্রথম রাজনৈতিক সভা। সেখানেই তৃণমূলের সম্প্রীতি এবং ধর্ম নিরপেক্ষ অবস্থানকে স্পষ্ট করে তুলে ধরলেন মমতা। তৃণমূল নেত্রী বললেন, ‘‘আমি দুর্গাপুজো করি, গণেশ চতুর্থী পালন করি। আবার রমজানেও থাকি। ২৪ ডিসেম্বর রাতে চার্চে গিয়ে প্রার্থনাও করি। তৃণমূল বিভেদের রাজনীতি করে না। আর যারা করে তাদের সঙ্গে সমঝোতাও করে না।’’

এই প্রথম রাজ্যের বাইরে কোথাও কর্মিসভা করলেন মমতা। আগামী লোকসভা নির্বাচনে লক্ষ্য স্থির করে তাঁর তৃণমূল সর্বভারতীয় সংগঠনের দিকে জোর দিচ্ছে। সেই প্রক্রিয়ায় তৃণমূলের প্রথম মঞ্চ ছিল ত্রিপুরা। দ্বিতীয়টি গোয়া। ত্রিপুরায় তাঁর দল গেলেও মমতা নিজে যাননি। সেই হিসেবে গোয়া প্রথম ভিনরাজ্য, যেখানে কর্মিসভা করলেন মমতা। সেই মঞ্চেই তৃণমূলকে সম্প্রীতি এবং ধর্ম নিরপেক্ষতার মুখ হিসেবে তুলে ধরলেন মমতা।

তিন দিনের সফরে বৃহস্পতিবার গোয়ায় এসেছেন মমতা। শুক্রবার সকালেই পানাজিতে গোয়ার তৃণমূল কর্মীদের নিয়ে সভা করেন। সেখানে মমতা বলেন, ‘‘আমি বহিরাগত নই।’’ এর পর ‘‘কোঙ্কণি ভাষায় বলেন, আমি আপনাদের বোনের মত। আমি বাংলার মেয়ে, ভারতের মেয়ে। ভারত যদি আমার মাতৃভূমি হয়ে থাকে। তবে বাংলাও আমার মাতৃভূমি, গোয়াও আমার মাতৃভূমি।’’

মমতা বলেন, ‘‘আমি প্রথম এখানে আসছি না। ১০ বছর আগে এখানে এসেছিলাম ফিল্ম ফেস্টিভালে। রেলমন্ত্রী হিসেবে এখানে এসেছি। মাডগাও তে। কোঙ্কণ রেলের কাজে এসেছিলাম। সেফটি ডিভাইস উদ্বোধনে।’’ এর পর তাঁর সংযোজন, ‘‘‘আমি গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী হব না, কিন্তু গোয়ার উন্নয়নের জন্য কাজ করব।’’

সভায় বার বার বাংলার সঙ্গে গোয়ার তূলনা টেনেছেন মমতা। বলেছেন বাংলার সঙ্গে গোয়ার অনেক মিল। তবে বেশি মিল তিনটি বিষয়ে। মাছ, ফুটবল আর লোক সংস্কৃতি। গোয়ার মৎস্যজীবীদের উন্নয়নের কথা বলেছেন মমতা। ফুটবল খেলোয়াড়দের উৎসাহ দেওয়ার কথা বলেছেন। আর বলেছেন, গোয়ার সংস্কৃতি রক্ষা করতে তিনি জান লড়িয়ে দেবেন। বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির বিধায়কদের বার বার দলবদল নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূলনেত্রী। তবে তারই মধ্যে গোয়ার বাসিন্দাদের বার্তা দিয়েছেন, ‘‘অনেককেই তো সুযোগ দিয়েছেন। একবার আমাদেরও দিয়ে দেখুন।’’ কোঙ্কনি ভাষায় এরপর মমতা বলেন, ‘‘গোয়িঞ্চি নভিসকাল।’’ যার বাংলা অর্থ গোয়ায় নতুন সকাল আসবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.