×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

করোনার আতঙ্কের মধ্যে ফায়দা তোলার চেষ্টা, জেলে যেতে হল এক যুবককে

সংবাদ সংস্থা
বেজিং ১১ মার্চ ২০২০ ১৭:২২
প্রতীকী চিত্র। ছবি: এএফপি থেকে নেওয়া।

প্রতীকী চিত্র। ছবি: এএফপি থেকে নেওয়া।

প্রতিদিন বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত সব থেকে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা সামনে এসেছে উত্সস্থল চিন থেকে। কিন্তু এর মধ্যেই আবার কেউ কেউ সুবিধা নিতে করোনার ভুয়ো আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন। এই অভিযোগে চিনের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হল।

চিনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি এক ব্যক্তি অফিসে ফোন করে বলেন, তাঁর মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা গিয়েছে। তাই তিনি অফিস যেতে পারছেন না। সেই ফোন পেয়ে, সতর্ক হয়ে যান অফিস কর্তৃপক্ষ। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় কয়েক দিনের জন্য গোটা অফিস বন্ধ করে দেওয়া হবে। খবর যায় পুলিশের কাছেও।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ওই ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। জানতে চাওয়া হয় কী ভাবে তিনি করোনা আক্রান্ত হলেন বলে মনে হয়। ওই ব্যক্তি বলেন, সম্প্রতি তিনি শপিং মলে গিয়েছিলেন। সেখানে করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তিও ছিলেন। নিজের বক্তব্য প্রমাণের জন্য অভিযুক্ত শপিং মলে কেনাকাটার একটি রসিদও পেস করেন। কিন্তু পুলিশ খতিয়ে দেখে বুঝতে পারে, সেই রসিদ ভুয়ো। পরে আরও কিছু প্রশ্ন করার পরই বেরিয়ে পড়ে ওই ব্যক্তির আসল অভিসন্ধি।

Advertisement

আরও পড়ুন: আতঙ্ক মুছে ফেলতে হোলিকা দহনে পোড়ানো হল ‘করোনাসুর’

অফিস যেতে না চাওয়ার জন্যই ওই ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার নাটক করেছিলেন।তাঁর বিরুদ্ধে ভুয়ো তথ্য ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়। অভিযোগ প্রমাণের পর তাঁকে তিন মাসের জন্য জেলে পাঠানো হয়েছে। তার পরেও অন্তত ছ’ মাস তাঁর উপর নজরদারি চালানো হবে বলে জানিয়েছে চিনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম।

আরও পড়ুন: নিজের প্রশংসা শুনে কেঁদে ফেললেন নরেন্দ্র মোদী

Advertisement