Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২২
Amazon

ক্রেতাকে কুকথা! চাকরি গেল অ্যামাজনের ডেলিভারি এজেন্টের

ক্রেতা বাড়িতে না থাকায় তাঁর পার্সেল বাড়ির ময়লা ফেলার জায়গাায় ফেলে রেখে চলে যান ডেলিভারি এজেন্ট। একটি চিরকুটও রেখে যান তাঁর জন্য।

ময়লা ফেলার বাক্সের পাশে পড়ে রয়েছে পার্সেল। পাশে সেই  চিরকুট।

ময়লা ফেলার বাক্সের পাশে পড়ে রয়েছে পার্সেল। পাশে সেই চিরকুট। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৯ অগস্ট ২০২২ ২০:৪৮
Share: Save:

ক্রেতাকে বাড়িতে না পেয়ে তাঁর দরজায় একটি চিরকুট লিখে রেখে গিয়েছিলেন এক ডেলিভারি এজেন্ট। তাতে তিনি পার্সেলটি কোথায় রেখে যাচ্ছেন, তার বর্ণনা যেমন দেওয়া ছিল, একই সঙ্গে ছিল ক্রেতার প্রতি একটি বিশেষ সম্বোধনও। যা দেখা মাত্রই সংস্থাটি চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছে ওই সরবরাহ কর্মীকে।

Advertisement

ক্রেতার নাম কেরি হোডগে। বয়স ২৮। ইংল্যান্ডের চেশায়ারের বাসিন্দা কেরিই ডেলিভারি সংস্থাটিকে ওই চিরকুটের বয়ানের ছবি তুলে পাঠিয়েছেন। তাতে লেখা, ‘ময়লা ফেলার বাক্সের পাশে রাখা আছে।’ সঙ্গে সম্বোধন— ‘স্টুপিড’।

কেরি হোডগে।

কেরি হোডগে। ছবি: সংগৃহীত

গ্রাহকের সঙ্গে সরাসরি যোগ যে সমস্ত ব্যবসায় সেখানে ক্রেতাকেই সাধারণত ঈশ্বরের মর্যাদা দেওয়া হয়। তবে এই সরবরাহ কর্মী যে সেই নীতিতে চলেন না, তা তাঁর আচরণে স্পষ্ট। তিনি মনে করেন তাঁর সময় অনুযায়ী যদি ক্রেতা বাড়িতে না থেকে থাকেন তবে ক্রেতাই ‘গর্দভ’ বা স্টুপিড।

কেরি জানিয়েছেন, ওই নোটটি দেখার পর রাগে কান-মাথা গরম হয়ে গিয়েছিল তাঁর। তবে তিনি শান্ত ভাবেই ওই নোটের ছবি তুলে সেটি পোস্ট করেন অ্যামাজনের ফেসবুক পেজে। বিবরণে লেখেন, ‘‘বাড়ি ফিরে একটা সুন্দর নোট পেলাম আমার ডেলিভারি এজেন্টের তরফ থেকে। আর দেখলাম আমার পার্সেল ময়লা ফেলার বাক্সের পাশে ফেলে রাখা হয়েছে।’’

Advertisement

জবাবে দ্রুত ব্যবস্থা নেয় ডেলিভারি সংস্থাটি। এবং ফেসবুকেই জানিয়ে দেয়, ওই সরবরাহ কর্মী আর তাঁদের হয়ে কাজ করার সুযোগ পাবেন না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.