×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

প্রায় এক বছর পর কোভিডে দৈনিক মৃত্যু শূন্য, আশা দেখাচ্ছে ব্রিটেন

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন ০২ জুন ২০২১ ০৯:১১
ব্রিটেনে একটি টিকা কেন্দ্রের বাইরের ছবি।

ব্রিটেনে একটি টিকা কেন্দ্রের বাইরের ছবি।
ছবি—রয়টার্স।

কোভিডের জেরে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা শূন্যতে নেমে এল ব্রিটেনে। গত বছর জুলাইয়ের পর মঙ্গলবার প্রথম বার করোনার জেরে কাউকে প্রাণ হারাতে হয়নি সে দেশে। সোমবার সে দেশে মৃত্যু হয় মাত্র এক জন কোভিড রোগীর। যদিও গত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় দৈনিক আক্রান্ত বাড়তে শুরু করেছে সে দেশে।

জন্স হপকিন্সের তথ্য অনুসারে, ব্রিটেনে এখনও অবধি ৪৫ লক্ষ লোক আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে। সে দেশের সরকারের দেওয়া তথ্য অনুসারে, এর মধ্যে ১ লক্ষ ২৭ হাজার ৭৮২ জনের মৃত্যু হয়েছিল অতিমারি শুরুর প্রায় এক মাসের মধ্যে। গত বছর যখন অতিমারি শুরু হয় তখন ইউরোপের দেশগুলির মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যায় সবথেকে এগিয়ে ছিল ব্রিটেন।

মৃত্যুর সংখ্যা কমে যাওয়া নিয়ে ব্রিটেনের স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট হ্যানকক মঙ্গলবার বলেছেন, ‘‘নিঃসন্দেহে খুব ভাল খবর।’’ ডিসেম্বরে শুরু হওয়া টিকাকরণ যে ‘কাজ করছে’ সে বিষয়টিও উল্লেখ করেছেন তিনি। পাশাপাশি করোনার নতুন প্রজাতির জেরে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি নিয়েও দিয়েছেন সতর্কবার্তা। বলেছেন, ‘‘আমরা এখনও ভাইরাসকে হারাতে পারিনি।’’ তাই জনগণকে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধও করেছেন তিনি।

Advertisement

গত কয়েক দিন ধরে ব্রিটেনে মিলছে করোনাভাইরাসের ডেলটা প্রজাতি। যার প্রথম সন্ধান মিলেছিল ভারতে। গত এক সপ্তাহ ধরে সে দেশে রোজ আক্রান্ত হচ্ছেন ৩ হাজারের বেশি লোক। তৃতীয় ঢেউ যাতে আছড়ে না পড়তে পারে সে নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করেছে ইউরোপের ওই দেশটি। সে জন্য ২১ জুন থেকে বিধিনিষেধ পুরোপুরি তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেও সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে আসেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এখনও পর্যন্ত দেশের আড়াই কোটিরও বেশি মানুষকে দু’টি টিকার আওতায় এনেছে ব্রিটেন।

Advertisement