Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
China

গলওয়ানে সংঘর্ষের ঘটনার ভিডিয়ো প্রকাশ করল চিন

সেই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, দুই দেশের সেনাকে হাতাহাতি করতে। দুই সেনার বাহিনী কী ভাবে মুখোমুখি হয়েছিল তা-ও আংশিক ভাবে দেখা যাচ্ছে ওই ভিডিয়োয়।

গলওয়ান উপত্যকায় মুখোমুখি ভারত এবং চিন সেনা।

গলওয়ান উপত্যকায় মুখোমুখি ভারত এবং চিন সেনা। ছবি ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

সংবাদ সংস্থা
বেজিং শেষ আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০২:৪৩
Share: Save:

পূর্ব লাদাখের গলওয়ান উপত্যকায় ভারত এবং চিনা সেনার মুখোমুখি হয়েছিল গত বছর ১৫ জুন। সেই সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছিলেন ২০ জন ভারতীয় জওয়ান। এত দিন অস্বীকার করলেও ৫ চিনা জওয়ানের প্রাণহানির কথা অবশেষে শুক্রবার স্বীকার করেছে বেজিং। সে দিনের হাতাহাতির ঘটনার একটি ভিডিয়ো শুক্রবার প্রকাশ করা হয়েছে সে দেশের সরকারি সংবাদমাধ্যমে। মনে করা হচ্ছে, সে দেশের অভ্যন্তরীণ ক্ষোভকে প্রশমিত করতেই এই ভিডিয়ো প্রকাশ করা হয়েছে।

সেই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, দুই দেশের সেনাকে হাতাহাতি করতে। দুই সেনার বাহিনী কী ভাবে মুখোমুখি হয়েছিল তা-ও আংশিক ভাবে দেখা যাচ্ছে ওই ভিডিয়োয়। চিনা সরকারি সংবাদমাধ্যমের বিশ্লেষক শেন শিওয়েই ভিডিয়োটি টুইটারে আপলোড করে লিখেছেন, ‘গত জুনে গলওয়ান উপত্যকার ভিডিয়ো। এটা দেখাচ্ছে কী ভাবে ভারতীয় সীমান্তবাহিনী চিনের দিকে অনুপ্রবেশ করছে’।

২০২০-র ১৫ জুন গলওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল। তাতে প্রাণ হারান ২০ জন ভারতীয় সেনা। চিনা সেনার প্রাণহানি ঘটেছিল বলে তখন জানিয়েছিল ভারতীয় সেনা। ক্ষয়ক্ষতির কথা তখন স্বীকার করেনি চিন। ইতিমধ্যে কেটেছে অনেকটা সময়। শীতে জমে বরফ হয়েছে প্যাংগং লেকের জল। চিনও ওই উপত্যকার বিভিন্ন এলাকা থেকে সেনা এবং গড়ে তোলা অস্থায়ী পরিকাঠামো সরিয়ে নিয়েছে বলে দেখা গিয়েছে উপগ্রহ চিত্রে। শুক্রবার বেজিং স্বীকার করেছে পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলআই)-র ৪ অফিসার এবং ১ জওয়ানের মৃত্যুর কথা। যদিও এই সংখ্যার সঙ্গে ভারতীয় সেনা এবং আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের দেওয়া সংখ্যার ফারাক রয়েছে। তবুও ৮ মাস পর চিনের এই স্বীকারে কূটনৈতিক সাফল্য দেখছে ভারত।

সেনাদের প্রাণহানির খবর কেন এত দিন চেপে রাখা হয়েছিল তা নিয়ে ক্ষোভ ছড়়ায় চিনের অভ্যন্তরে। তা প্রশমিত করতেই এই ভি়ডিয়ো প্রকাশ বলে মনে করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE