Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Palestine

ইজ়রায়েল-প্যালেস্তাইন শান্তি পরিকল্পনা প্রকাশ ট্রাম্পের, তুঙ্গে বিতর্ক

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের ইস্ট রুমে দাঁড়িয়ে ইজ়রায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে নিয়ে ওই পরিকল্পনা প্রকাশ্যে এনেছেন ট্রাম্প। তাঁর মতে, অতীতে আমেরিকা বারবার এই সমস্যা মেটাতে চাইলেও তা সম্ভব হয়নি।

ট্রাম্পের ইজ়রােয়ল-প্যালেস্তাইন শান্তি প্রস্তাব প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয় বিক্ষোভ। সামাল দিচ্ছে ইজ়রায়েলি সেনা। বুধবার ওয়েস্ট ব্যাঙ্কের শহর রামাল্লার কাছে। এপি

ট্রাম্পের ইজ়রােয়ল-প্যালেস্তাইন শান্তি প্রস্তাব প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয় বিক্ষোভ। সামাল দিচ্ছে ইজ়রায়েলি সেনা। বুধবার ওয়েস্ট ব্যাঙ্কের শহর রামাল্লার কাছে। এপি

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন শেষ আপডেট: ৩০ জানুয়ারি ২০২০ ০৪:৩০
Share: Save:

বহু দিনের জল্পনার শেষ। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রকাশ করলেন তাঁর ইজ়রায়েল-প্যালেস্তাইন শান্তি পরিকল্পনা। প্রতিশ্রুতি দিলেন, ‘নতুন ভোরের।’ তবে সব দেখেশুনে ক্ষুব্ধ প্যালেস্তাইনিদের দাবি, ট্রাম্পের ওই প্রস্তাব বৈষম্যমূলক ও ‘ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে ফেলে দেওয়ার যোগ্য।’

Advertisement

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের ইস্ট রুমে দাঁড়িয়ে ইজ়রায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে নিয়ে ওই পরিকল্পনা প্রকাশ্যে এনেছেন ট্রাম্প। তাঁর মতে, অতীতে আমেরিকা বারবার এই সমস্যা মেটাতে চাইলেও তা সম্ভব হয়নি। তবে এ বারের পরিকল্পনা ফলপ্রসূ হবেই। ট্রাম্পের কথায়, ‘‘আমরা সবাই মিলে পশ্চিম এশিয়ায় নতুন ভোরের সূচনা করতে পারি।’’ এ দিন ইস্ট রুমে হাজির ছিলেন ইজ়রায়েলি ও মার্কিন ইহুদি অতিথিরা। কিন্তু কোনও প্যালেস্তাইনি প্রতিনিধি সেখানে ছিলেন না বলেই দাবি সংবাদমাধ্যমের।

ট্রাম্পের পরিকল্পনা প্যালেস্তাইন কার্যত উড়িয়ে দিয়ে বলেছে, ইজ়রায়েল আন্তর্জাতিক কূটনীতির আড়ালে এত দিন যা চেয়ে এসেছে, সেটাই হতে চলেছে। জেরুসালেমকে তারা নিজেদের ‘অবিভক্ত’ রাজধানী হিসেবে নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। এ শহরকে তারা প্যালেস্তাইনের সঙ্গে ভাগ করে নিতে আগ্রহী নয়। ওয়েস্ট ব্যাঙ্ক নিয়ে অতীতে যে বোঝাপড়া রয়েছে, ট্রাম্পের নয়া প্রস্তাব অনুযায়ী, ইজ়রায়েল তা শেষ করে দিতে পারে।

ট্রাম্প অবশ্য ‘শান্তির দিকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য’ ইজ়রায়েলের প্রশংসা করেছেন। তাঁর প্রস্তাবমতো, ভবিষ্যতে প্যালেস্তাইনকে ‘সামরিক বাহিনীমুক্ত’ করে অধিকৃত এলাকায় ইজ়রায়েলের সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠা করা হবে। নেতানিয়াহুকে পাশে নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যুদ্ধ-ধ্বস্ত প্যালেস্তাইনের জন্য ৫ হাজার কোটি বিনিয়োগের কথাও ঘোষণা করেছেন। পাশাপাশি ইজ়রায়েলের প্রতি ট্রাম্পের বার্তা, নিজেদের নিরাপত্তার সঙ্গে কোনও আপস করবেন না। তবে বিনিয়োগের কথায় গলেনি প্যালেস্তাইন। তাদের প্রেসিডেন্ট মামুদ আব্বাস বলেছেন, ‘‘ষড়যন্ত্রমূলক এই পরিকল্পনা কার্যকর করতে দেব না। একে ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে ফেলে দেবেন প্যালেস্তাইনিরা।’’ এই প্রস্তাবের প্রতিবাদে গাজা স্ট্রিপ এবং ওয়েস্ট ব্যাঙ্কের পথে শুরু হয়ে যায় বিক্ষোভ।

Advertisement

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিচেপ তাইপ এর্ডোয়ানও ট্রাম্পের এই প্রস্তাব নিয়ে আপত্তি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘‘জেরুসালেম মুসলিমদের কাছে পবিত্র স্থান। ইজ়রায়েলের হাতে জেরুসালেম তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা একেবারেই মেনে নেওয়া যায় না। এই প্রস্তাব প্যালেস্তিনীয়দের অধিকার মানছে না। ইজ়রায়েলের অধিকারকেই বৈধতা দিচ্ছে।’’ আপত্তি জানিয়েছে ইরানও। আর এ প্রস্তাবে সৌদি আরবের মতো দেশ সায় দিলেও সন্দেহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া। তাদের মতে, এটা দু’পক্ষই মানতে পারছে কি না, দেখা দরকার। সংবাদ সংস্থা

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.