Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পেট ভর্তি প্লাস্টিক মিলল তিমির দেহে

ফিলিপিন্স সরকারের আঞ্চলিক মৎস্য কেন্দ্র জানিয়েছে, শনিবার দেশের দক্ষিণ প্রান্তের কমপোসতেলা ভ্যালিতে মারা যায় তিমিটি। শুক্রবার থেকেই ওই অঞ্চলে

সংবাদ সংস্থা
ম্যানিলা ১৯ মার্চ ২০১৯ ০৬:৩৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
পেট থেকে প্লাস্টিক। এএফপি

পেট থেকে প্লাস্টিক। এএফপি

Popup Close

ক্ষুধার্ত, অথচ পেটটা ভরা প্লাস্টিকে! সেই পেট ভর্তি প্লাস্টিকের বর্জ্যই প্রাণঘাতী হয়ে উঠল তিমিটির। ঘটনাটি ফিলিপিন্স উপকূলের। দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার এই দেশটির সমুদ্র সংলগ্ন অংশটি প্লাস্টিকের প্রভাবে ভয়াবহ দূষণের শিকার বলে জানিয়েছেন পরিবেশবিদেরা। তার ফলেই ক্রমশ বিষাক্ত হয়ে উঠেছে সমুদ্রের জল। তার প্রভাব পড়ছে সামুদ্রিক জীববৈচিত্রে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তিমি ও কচ্ছপ।

ফিলিপিন্স সরকারের আঞ্চলিক মৎস্য কেন্দ্র জানিয়েছে, শনিবার দেশের দক্ষিণ প্রান্তের কমপোসতেলা ভ্যালিতে মারা যায় তিমিটি। শুক্রবার থেকেই ওই অঞ্চলে দেখা গিয়েছিল তিমিটিকে। সাঁতরানোর ক্ষমতা ছিল না। ডিহাইড্রেশনে ভুগছিল তিমিটি। পরের দিনই শুরু হয় রক্তবমি। ক্রমশ মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়ে সেটি। মৃত্যুর পরে তিমিটির পেট থেকে উদ্ধার করা হয় ৪০ কেজি প্লাস্টিক। তার মধ্যে ছিল চালের ব্যাগও। ডি বোন কালেক্টর মিউজ়িয়ামের ডিরেক্টর জানিয়েছেন, এই প্রথম নয়, গত ১০ বছরে তিমি ও ডলফিন মিলিয়ে মোট ৬১টি প্রাণী মারণ প্লাস্টিকের শিকার। তবে এ বারের ঘটনাটি সবচেয়ে সাঙ্ঘাতিক। কোনও প্রাণীর পেটে এত পরিমাণে প্লাস্টিক আগে কখনও দেখা যায়নি বলে দাবি তাঁর।

ফিলিপিন্সে বর্জ্য ফেলার ক্ষেত্রে কঠোর আইন রয়েছে। কিন্তু পরিবেশবিদদের দাবি, তা শুধুমাত্রই খাতায় কলমে। শুধু এই দেশেই নয়, এর পার্শ্ববর্তী দেশগুলিও ভয়ানক দূষণের শিকার। গত বছর তাইল্যান্ডেও একটি মৃত তিমির পেট থেকে উদ্ধার হয়েছিল ৮০টি প্লাস্টিকের ব্যাগ।

Advertisement


Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement