Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কালই মুক্তি অভিনন্দনের, ঘোষণা করে ইমরান বললেন, শান্তির বার্তা দিতেই এই পদক্ষেপ

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান গতকাল অর্থাৎ বুধবার আটক হয়েছেন পাকিস্তানের হাতে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৭:২১
Save
Something isn't right! Please refresh.
অভিনন্দন বর্তমান।—ফাইল চিত্র।

অভিনন্দন বর্তমান।—ফাইল চিত্র।

Popup Close

মুক্তি পাচ্ছেন পাকিস্তানের কব্জায় থাকা ভারতীয় উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সে দেশের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে দাঁড়িয়ে বৃহস্পতিবারএ কথা ঘোষণা করেছেন। শান্তির বার্তা দিতেই ভারতীয় পাইলটকে ফেরানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। সামরিক সক্ষমতা এবং প্রবল কূটনৈতিক তৎপরতাতেই এটা সম্ভব হল বলে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশারদরা মনে করছেন।

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান বুধবার আটক হয়েছেন পাকিস্তানের হাতে। পাক বায়ুসেনার বেশ কয়েকটি যুদ্ধবিমান ওই দিন সকালে ভারতের আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছিল। তাদের চ্যালেঞ্জ করতে গিয়েই পাক আকাশসীমায় ঢুকে পড়েন অভিনন্দন। পাক হামলায় তাঁর মিগ-২১ বিমানটি ধ্বংস হয়। তিনি প্যারাশুটে করে বিমান থেকে বেরিয়ে পড়েন। কিন্তু, অভিনন্দনপাক অধিকৃত কাশ্মীরেই নামতে বাধ্য হন এবং পাক বাহিনী তাঁকে আটক করে।

পাকিস্তানের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির যৌথ অধিবেশনে ইমরান এ দিন ভাষণ দেবেন, তা আগে থেকেই ঠিক ছিল। কিন্তু এত বড় ঘোষণা ইমরান করবেন, তা সে ভাবে আঁচ করা যায়নি। শুক্রবারই উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে পাকিস্তান মুক্তি দিচ্ছে— এ কথা ঘোষণা করে ইমরান বলেন, ‘‘শান্তির বার্তা দিতেই এই পদক্ষেপ।’’ পাক প্রধানমন্ত্রী জানান, পরিস্থিতি ‘নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়া’ উচিত নয়। নিয়ন্ত্রণের বাইরে গেলে ‘পাকিস্তানকেও প্রত্যাঘাত করতে হবে’ বলে তিনি মন্তব্য করেন। ইমরানের কথায়, ‘‘বহু দেশ ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। যুদ্ধ কোনও সমাধান নয়। ভারত যদি কোনও পদক্ষেপ করে, তা হলে আমাদের প্রত্যাঘাত করতেই হবে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: ‘ভারত-পাকিস্তান থেকে ভাল খবর আসবে, শেষ হবে উত্তেজনা’, বললেন ট্রাম্প​

আরও পড়ুন: পাক সেনার হাত থেকে তথ্য গোপন করতে দরকারি নথি খেয়ে ফেলেছিলেন অভিনন্দন!​

পাক বায়ুসেনার যুদ্ধবিমানগুলিকে তাড়া করতে গিয়ে মিগ-২১ বাইসন যুদ্ধবিমান নিয়ে অভিনন্দন বর্তমান বুধবার ঢুকে পড়েছিলেন পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রণে থাকা আকাশসীমায়। মিসাইল হানায় তাঁর বিমানটি ধ্বংস হয় এবং তিনি প্যারাশুটে করে পাক নিয়ন্ত্রণে থাকা ভূখণ্ডে নামতে বাধ্য হন। তার পর থেকেই পাকিস্তানের কব্জায় ভারতীয় উইং কম্যান্ডার।

অভিনন্দনকে অবিলম্বে এবং নিঃশর্তে মুক্তি দেওয়ার জন্য বুধবার থেকেই পাকিস্তানের উপরে চাপ বাড়াতে শুরু করেছিল ভারত। বৃহস্পতিবার পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি জানিয়েছিলেন, ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দিলে যদি ভারত উত্তেজনা কমাতে রাজি হয়, তা হলে পাইলটকে ছাড়া হতে পারে। কিন্তু ভারতের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়, উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের মুক্তির জন্য কোনও শর্ত রাখলে চলবে না। অভিনন্দনকে সামনে রেখে পাকিস্তান কন্দহর-কাণ্ডের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইছে বলেও নয়াদিল্লির তরফে মন্তব্য করা হয়।

শেষ পর্যন্ত অভিনন্দনকে নিঃশর্তেই মুক্তি দিচ্ছে পাকিস্তান। শুক্রবার ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে তাঁকে ভারতে ফেরানো হবে বলে জানা গিয়েছে।

অভিনন্দনের মুক্তির ঘোষণাকে ভারতের বিরাট জয় হিসেবেই দেখা হচ্ছে। মঙ্গলবার ভোররাতের অভিযানে পাকিস্তানকে নিজেদের সক্ষমতা দেখিয়ে দিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা। ভারতীয় আকাশসীমা লঙ্ঘন করার চেষ্টা কী ভাবে রুখতে হয়, বুধবার তা-ও ভারতীয় বাহিনী দেখিয়ে দিয়েছে। পাক প্রধানমন্ত্রী বুধবার বিকেল থেকে ফের শান্তির বার্তা দেওয়া শুরু করলেও সামরিক এবং কূটনৈতিক চাপ প্রবল ভাবে বহাল রেখেছিল ভারত। পাকিস্তানের কব্জায় থাকা ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডারকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ার জন্য চাপ বাড়ানো হচ্ছিল। বৃহস্পতিবার পুরো পরিস্থিতির বিষয়ে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক বিশদে অবহিত করে ১০টি দেশের রাষ্ট্রদূতকে। তাঁদের মধ্যে নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য দেশের কূটনীতিকরাও ছিলেন। পাকিস্তানও নিজেদের মতো করে সক্রিয় হয়েছিল কূটনৈতিক স্তরে। কিন্তু, প্রায় কোনও দেশের কাছ থেকেই সমর্থনের আশ্বাস পাকিস্তান পায়নি। এমনকি, চিনের কাছ থেকেও নয়। গোটা পর্বটাকে তাই ভারতীয় কূটনীতির উল্লেখযোগ্য সাফল্য হিসেবে দেখছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা।

(আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, আন্তর্জাতিক চুক্তি, আন্তর্জাতিক বিরোধ, আন্তর্জাতিক সংঘর্ষ- সব গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)



Tags:
Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement