Advertisement
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Prince Harry

Prince Harry: রানির ‘পাশে দাঁড়ানো’ থেকে বঞ্চিত হ্যারি

রানির শাসনের প্ল্যাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত একাধিক অনুষ্ঠান সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য গতকাল প্রকাশ করা হয় বাকিংহামের তরফে।

ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

শ্রাবণী বসু
লন্ডন শেষ আপডেট: ০৮ মে ২০২২ ০৭:০৯
Share: Save:

রানি দ্বিতীয় এলিজ়াবেথের শাসনকালের ৭০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান নিয়ে সাজ সাজ রব ব্রিটেন জুড়ে। পাল্লা দিয়ে চড়ছিল জল্পনার পারদও। সেই চর্চার শীর্ষে ছিলেন রাজকুমার হ্যারি ও তাঁর স্ত্রী মেগান। আদৌ তাঁদের আমন্ত্রণ জানানো হবে কি না, জানানো হলেও তাঁরা আসবেন কি না —এ সব নিয়ে জোর আলোচনার মধ্যেই জানা গেল, ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে সপরিবার ব্রিটেনে উড়ে আসবেন ডিউক অব সাসেক্স হ্যারি। তবে জনতাকে অভিবাদন জানাতে বাকিংহাম প্রাসাদের বারান্দায় যখন জড়ো হবে গোটা রাজপরিবার, তার মধ্যে দেখা যাবে না হ্যারিদের। সেখানে থাকার অনুমতি পাননি রানির তৃতীয় সন্তান রাজকুমার অ্যান্ড্রুও। অন্দরের গুঞ্জন, যৌন কেলেঙ্কারিতে জড়ানোর জেরেই এই শাস্তি।

আগামী ২ জুন রানির শাসনের প্ল্যাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত একাধিক অনুষ্ঠান সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য গতকাল প্রকাশ করা হয় বাকিংহামের তরফে। একই সঙ্গে জনতাকে অভিবাদন জানাতে রানির সঙ্গে যাঁরা যাঁরা প্রাসাদের বারান্দায় আসবেন, প্রকাশ করা হয়েছে তাঁদের তালিকাও।

বিবৃতি অনুযায়ী, ‘সতর্ক বিবেচনার পরে’ মোট ১৮ জন সদস্যকে ওই তালিকায় রাখা হচ্ছে। রাজকুমার চার্লস এবং তাঁর স্ত্রী ক্যামিলা, রাজকুমার উইলিয়াম এবং তাঁর স্ত্রী কেট ও তাঁদের তিন সন্তান-সহ বাকি যাঁদের নাম রয়েছে তালিকায়, তা থেকে এটা স্পষ্ট যে, রাজপরিবারের বিভিন্ন দায়িত্বে থাকা সদস্যেরাই রানির সঙ্গে বারান্দায় আসার সুযোগ পাচ্ছেন।

ফলে স্বাভাবিক ভাবেই রাজ-দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেওয়া রাজকুমার হ্যারি ও তাঁর স্ত্রী মেগান বাদ পড়েছেন সেই তালিকা থেকে। অন্য দিকে, রাজকুমার অ্যান্ড্রুর পাশাপাশি তালিকা থেকে বাদ রাখা হয়েছে তাঁর কন্যা এবং জামাইদেরও।

তবে রানির পাশে দাঁড়ানোর সুযোগ থেকে বঞ্চিত থাকলেও ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার ডাক পেয়ে তাঁরা বেশ ‘উৎসাহিত এবং সম্মানিত’, গতকাল এমনটাই জানিয়েছেন হ্যারি। ব্রিটেন ছাড়ার পরে এই
প্রথম বার সন্তানদের নিয়ে সেখানে যাচ্ছেন তিনি। অনুষ্ঠান পালনের সপ্তাহান্তের মধ্যেই পড়ছে তাঁর কন্যা লিলিবেটের প্রথম জন্মদিনটিও (৪ জুন)। উল্লেখ্য, এখনও পর্যন্ত লিলিবেটকে দেখেননি
রানি। দেখেননি রাজপরিবারের অন্যান্য সদস্যেরাও।

৩ জুন, শুক্রবার সেন্ট পল্‌স ক্যাথিড্রালে রানির শাসনকালকে শ্রদ্ধা জানাতে জাতীয় ‘থ্যাঙ্কগিভিং’-এর আয়োজন হয়েছে। পরের দিন অর্থাৎ শনিবার অনুষ্ঠিত হবে এপসম ডার্বি। এই দু’টি অনুষ্ঠানেই উপস্থিত থাকবেন রানি। রবিবার, ৫ জুন দেশ জুড়ে ‘প্ল্যাটিনাম জুবিলি লাঞ্চের’ আয়োজন করা হবে। ওই দিনই দক্ষিণ লন্ডনের ওভাল ক্রিকেট মাঠেও একটি বিশেষ অনুষ্ঠান রয়েছে।

৫ তারিখেই বাকিংহাম প্রাসাদের সামনে, দ্য মলের উপর নাচ, গান, বাদ্যযন্ত্র-সহযোগে একটি বিশেষ কুচকাওয়াজেরও আয়োজন রয়েছে। যার পুরোভাগে থাকবে ‘দ্য গোল্ড স্টেট কোচ’। তবে বয়সের কারণে অন্য সময়ের মতো রানি ওই ঘোড়ার গাড়িটিতে বসবেন না বলে জানানো হয়েছে। পরিবর্তে ১৯৫৩ সালের ২ জুন, রাজ্যাভিষেকের দিন রানির জনতাকে হাত নাড়িয়ে অভিবাদন জানানোর ছবি তুলে ধরা হবে। এর জন্য কোচটির জানলাগুলিতে স্ক্রিন লাগানোর ব্যবস্থা হচ্ছে বলে শোনা যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, শনিবার অর্থাৎ ৪ জুন, বাকিংহাম প্রাসাদের বাইরে রানিকে সঙ্গীতের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানাতে জড়ো হবেন হাজার হাজার মানুষ। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল ঘিরে একটি বিরাট চক্রাকার স্টেজ গড়া হবে বলেও খবর। শিল্পীদের জন্য মঞ্চে রাখা থাকবে একটি বিশালাকার পিয়ানো।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.