Advertisement
৩০ মে ২০২৪
Iran-Israel Conflict

ইরানের হাতে আটক জাহাজে রয়েছেন ১৭ জন ভারতীয়, তেহরানের সঙ্গে যোগাযোগ করছে দিল্লি

ইরানের সরকারি সংবাদমাধ্যম আইআরএনএ জানিয়েছে, আটকের পর সেটিকে তাদের জলসীমার মধ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

image of ship

পারস্য উপসাগরে জাহাজ আটক ইরানের। ছবি: রয়টার্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ২১:৫৯
Share: Save:

আরব আমিরশাহি উপকূলে ইরানের আটক করা জাহাজের ২৫ জন কর্মীর মধ্যে ১৭ জনই ভারতীয়। এমনটাই জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই। পারস্য উপসাগরের হরমুজ় প্রণালীতে আটক করা হয়েছে এমএসসি এরিজ জাহাজটিকে। ইরানের সরকারি সংবাদমাধ্যম আইআরএনএ জানিয়েছে, আটকের পর সেটিকে তাদের জলসীমার মধ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের একটি সূত্র জানিয়েছে, পণ্যবাহী জাহাজ এমএসসি দখল করেছে ইরান। তাতে সওয়ার রয়েছেন ১৭ জন ভারতীয়। কূটনৈতিক ভাবে ইরানের প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। নয়াদিল্লিতেও ইরানের দূতাবাসের সঙ্গে কথা চলছে। ভারতীয়দের দ্রুত মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করতে কথা চলছে।

জাহাজটি পরিচালনা করছে ইটালীয়-সুইস সংস্থা এমএসসি। তারা ইরান প্রশাসনের দ্বারা আটকের বিষয়টি স্বীকার করেছে। তারা জানিয়েছে, হেলিকপ্টারে চেপে এসে ওই জাহাজে উঠেছেন ইরানের প্রশাসনের আধিকারিকেরা। সংবাদ সংস্থা এপি সূত্রে খবর, জাহাজটি আদতে লন্ডনের জোডিয়াক গোষ্ঠীর। জোডিয়াক গ্রুপ হল ইজ়রায়েলি ধনকুবের ইয়াল অফারের। শুক্রবার দুবাই থেকে জাহাজটি মুম্বইয়ের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল। শনিবার হরমুজ় প্রণালীতে সেই জাহাজটি বাজেয়াপ্ত করল ইরানের বিশেষ বাহিনী।

পশ্চিম এশিয়ায় চাপানউতর চলছে। হামাসের সঙ্গে ইজ়রায়েলের সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে ইরানও। সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে ইরানি দূতাবাসে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছিল ইজ়রায়েলের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে। ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় মৃত্যু হয় সাত জনের, যাঁদের মধ্যে ছিলেন ইরানের সামরিক বাহিনীর দুই জেনারেল।

শুক্রবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল আমেরিকার এক উচ্চপদস্থ গোয়েন্দাকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, ইজ়রায়েলে হামলা চালাতে পারে ইরান। উত্তর এবং দক্ষিণ ইজ়রায়েলে আক্রমণ করতে পারে তেহরান। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই এই হামলার ঘটনা ঘটতে পারে বলে দাবি করা হয়। ইজ়রায়েলও পাল্টা হুঁশিয়ারি দেয়। সেনার মুখপাত্র দানিয়েল হাগারি জানান, ইরানকে ফল ভুগতে হবে।

গত অক্টোবরে ইজ়রায়েল ভূখণ্ডে ঢুকে হামলা চালায় হামাস। অপহরণ করে বহু নাগরিককে। পাল্টা গাজ়ায় হামলা চালায় ইজ়রায়েল। তার পর থেকেই ধারাবাহিক ভাবে হামাস, হিজ়বুল্লা, হুথি-সহ ইজ়রায়েল বিরোধী সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলিকে মদত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইরানের বিরুদ্ধে। তারই জেরে গত এক মাসে ইরানের বিভিন্ন ঠিকানায় হামলা চালিয়েছে ইজ়রায়েল প্রেসিডেন্ট বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর বাহিনী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Iran israel
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE