Advertisement
২০ জুন ২০২৪
Pakistan General Election 2024

পাক জোট সরকারে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ়

তবে আরও বড় চমক দিয়ে দল জানাল, প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন না পিএমএল-এন প্রধান নওয়াজ় শরিফ। এই পদে তিনি তাঁর ভাই, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ় শরিফকে মনোনীত করেছেন।

An image of Shehbaz Sharif

শাহবাজ় শরিফ। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ শেষ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৮:৩১
Share: Save:

পাকিস্তানে সরকার গঠন নিয়ে অবশেষে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছল রাজনৈতিক দলগুলি। মঙ্গলবার দিনের শেষে বিলাবল ভুট্টো জ়ারদারির পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) এবং দ্য মুত্তাহিদ কওমি মুভমেন্ট-পাকিস্তান (এমকিউএম-পি)-এর সঙ্গে জোট গড়ে সরকার গঠনের কথা ঘোষণা করল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (পিএমএল-এন)।

তবে আরও বড় চমক দিয়ে দল জানাল, প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন না পিএমএল-এন প্রধান নওয়াজ় শরিফ। এই পদে তিনি তাঁর ভাই, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ় শরিফকে মনোনীত করেছেন। পঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পদে নিযুক্ত হবেন নওয়াজ়-কন্যা মরিয়ম। পাকিস্তানের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও মহিলা মুখ্যমন্ত্রীর পদে নিযুক্ত হবেন। পিপিপি অবশ্য আগেই জানিয়ে দিয়েছে, সরকার গঠনে তাদের পূর্ণ সমর্থন থাকলেও বিলাবল কোনও মন্ত্রী-পদ নেবেন না।
রবিবার ভোটের পূর্ণাঙ্গ ফল বেরোনোর পরে দেখা যায়, জেলবন্দি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআই সমর্থিত নির্দল প্রার্থীরা সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে ৯৩টি আসনে জিতেছেন। নওয়াজ়ের দল পেয়েছে ৭৫টি এবং পিপিপি পেয়েছে ৫৩টি আসন। এ বার লড়াই হওয়া ২৬৫টি আসনে সরকার গড়তে প্রয়োজন ছিল ১৩৩টি আসনের। কিন্তু একক ভাবে কোনও দল সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় জোট সরকার গড়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। সূত্রের খবর, সে দিন রাতেই বিলাবল-শাহবাজ়ের জরুরি বৈঠক বসে। জোটের সিদ্ধান্তে আসেন তাঁরা। পিএমএল-এনকে পূর্ণ সমর্থন জোগায় ১৭টি আসনে জেতা এমকিউএম-পি। মঙ্গলবার জোট সরকার গঠনের কথা ঘোষণা করেছে তারা।

জোট প্রসঙ্গে পিপিপি নেতা আসিফ আলি জ়ারদারি গত কাল একটি সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন, যদিও তাঁরা ভোটে একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন, তবু দেশের স্বার্থেই জোট বেঁধে সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। একই সুরে পিএমএল-এন এক বিবৃতিতে বলেছে, দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ফেরাতে পারস্পরিক সহযোগিতা কাম্য।

প্রত্যাশিত ভাবে, এই জোটের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে ইমরানের দল পিটিআই। তারা বিশ্বাস করে, এই ভোট কারচুপির ভোট। হুঁশিয়ারি দিয়ে ইমরান খান বলেছেন, ‘‘দিনে-দুপুরে এই ধরনের ডাকাতি জনগণের জন্য অসম্মানজনক। পাশাপাশি, এই সিদ্ধান্ত দেশের অর্থনীতিকে আরও তলানির দিকে ঠেলে দেবে।’’ এক্স হ্যান্ডলে ইমরানের হয়ে তাঁর পরিবার পিটিআই-প্রধানের বক্তব্য পোস্ট করেছে। সেখানে ইমরানের বক্তব্য, মানুষের সিদ্ধান্তকে তাঁরা সম্মান করেন। তাই কোনও অবস্থাতেই সরকার গড়ার জন্য তাঁরা পিপিপি, পিএমএল-এন বা এমকিউএম-পির হাত ধরবে না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE