Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Israel-Hamas Conflict

গাজ়ায় সংঘর্ষবিরতি প্রস্তাবে রাষ্ট্রপুঞ্জে ভিটো আমেরিকার

নিরাপত্তা পরিষদের ১৩টি সদস্য দেশ। ব্রিটেন ভোটদানে বিরত থাকে। ভিটো দেওয়ার পরে রাষ্ট্রপুঞ্জে আমেরিকার উপরাষ্ট্রদূত রবার্ট উড বলেন, ‘‘এখন ইজ়রায়েলি সামরিক অভিযান থামালে গাজ়ায় ক্ষমতায় থাকবে হামাসই।”

An image of United Nations

রাষ্ট্রপুঞ্জ। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক ও জেরুসালেম শেষ আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩ ০৭:০২
Share: Save:

তৃতীয় মাসে পড়ল ইজ়রায়েল ও প্যালেস্টাইনি সংগঠন হামাসের লড়াই। মানবিক কারণে সংঘর্ষবিরতি চেয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জে আনা একটি প্রস্তাবে আজ ভিটো দিল আমেরিকা।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির আনা এই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছিল নিরাপত্তা পরিষদের ১৩টি সদস্য দেশ। ব্রিটেন ভোটদানে বিরত থাকে। ভিটো দেওয়ার পরে রাষ্ট্রপুঞ্জে আমেরিকার উপরাষ্ট্রদূত রবার্ট উড বলেন, ‘‘এখন ইজ়রায়েলি সামরিক অভিযান থামালে গাজ়ায় ক্ষমতায় থাকবে হামাসই। ফলে ফের একটি যুদ্ধের বীজ বপন করা হবে। নিরাপত্তা পরিষদ হামাসের কড়া নিন্দা করেনি। ইজ়রায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে।’’

রবার্ট উডের মতে, ‘‘আমেরিকা চায়, ইজ়রায়েলি ও প্যালেস্টাইনিরা শান্তিতে থাকুন। স্থায়ী শান্তি বিরাজ করুক ওই এলাকায়। কিন্তু এই প্রস্তাবে যে সংঘর্ষবিরতির কথা বলা হয়েছে‌ তা টিকবে না। ফলে ফের একটি লড়াইয়ের বীজ বপন করা হবে।’’ তাঁর মতে, ‘‘এই প্রস্তাবের সঙ্গে বাস্তব পরিস্থিতির কোনও যোগ নেই। এর ফলে বাস্তবে একটি সুচও নড়ত না।’’ রাষ্ট্রপুঞ্জে ইজ়রায়েলের রাষ্ট্রদূত জিলাড এরডানের বক্তব্য, ‘‘সব পণবন্দি মুক্তি পেলে ও হামাস ধ্বংস হলে তবেই সংঘর্ষবিরতি সম্ভব।’’

রাষ্ট্রপুঞ্জে প্যালেস্টাইনি দূত রিয়াড মনসুর নিরাপত্তা পরিষদে বলেন, ‘‘বিপর্যয় হল। লক্ষ লক্ষ প্যালেস্টাইনির জীবন সুতোয় ঝুলছে। প্রতিটি জীবনই রক্ষা করার যোগ্য।’’ সংযুক্ত আরব আমিরশাহির রাষ্ট্রদূত মহম্মদ আবুশাহাব বলেন, ‘‘গাজ়ায় নিরন্তর বোমাবর্ষণ থামানোর প্রস্তাব যদি আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে সমর্থন করতে না পারি তবে আমরা কীবার্তা দিচ্ছি?’’

আমেরিকার পদক্ষেপের সমালোচনা করে হামাসের তরফে বলা হয়েছে, ‘‘সংঘর্ষবিরতির প্রস্তাবে আমেরিকার তরফে বাধা প্যালেস্টাইনিদের গণহত্যায় দখলদার বাহিনীকে সরাসরি সাহায্য করার শামিল। এর ফলে আরও গণহত্যা ঘটবে। একটি জনগোষ্ঠীকে সম্পূর্ণ নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার চেষ্টা হবে।’’

অন্য দিকে, এ দিন দক্ষিণ গাজ়ার খান ইউনিসে ইজ়রায়েলি হামলায় ১০ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে প্যালেস্টাইনি স্বাস্থ্য মন্ত্রক। পাশাপাশি একটি এলাকা থেকে পণবন্দিদের উদ্ধারের ব্যর্থ চেষ্টা চালায় ইজ়রায়েলি বাহিনী। তাতে দু’জন ইজ়রায়েলি সেনা আহত হন। হামাস জানিয়েছে, তাদের যোদ্ধারা ওই চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছেন।

দক্ষিণ সিরিয়াতেও এ দিন হামলা চালিয়েছে ইজ়রায়েলি সেনার ড্রোন। তাতে হিজ়বুল্লা সংগঠনের তিন সদস্য নিহত হয়েছেন। অন্য একটি ঘটনায় ইজ়রায়েলি বাহিনীর গোলাবর্ষণে আহত হয়েছেন লেবাননের তিনজন সেনা।

ইজ়রায়েলি অভিযানের জেরে গোটা বিশ্বে ইহুদি-বিদ্বেষ বাড়ছে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। এ দিন ইহুদি উৎসব হানুকা শুরুর আগে আমেরিকার নিউ ইয়র্ক প্রদেশের রাজধানী আলবানিতে ইহুদি ধর্মস্থান ‘টেম্পল ইজ়রায়েল’-এর সামনে শটগান থেকে দু’বার গুলি ছোড়েন এক ব্যক্তি। তাতে কেউ আহত হননি। পুলিশ জানিয়েছে, তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর আগেই স্থানীয় এক ব্যক্তি ওই শটগানধারীর সঙ্গে কথা বলে তাঁকে শান্ত করেন। পরে তাঁকে হেফাজতে নেওয়ার সময়ে ‘মুক্ত প্যালেস্টাইন’-এর পক্ষে স্লোগান দেন শটগানধারী। ঘটনার তদন্ত করছে এফবিআইও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE