×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

কফিন খুলতেই বেরিয়ে এল ২৫০০ বছরের পুরনো মমি!

সংবাদ সংস্থা  
কায়রো ০৬ অক্টোবর ২০২০ ১৪:০৮
উন্মোচনের ভিডিয়ো সেখানে উপস্থিত জনতার মতোই হামলে পড়ে দেখেছেন উৎসাহী নেটাগরিকরা। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

উন্মোচনের ভিডিয়ো সেখানে উপস্থিত জনতার মতোই হামলে পড়ে দেখেছেন উৎসাহী নেটাগরিকরা। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

শুইয়ে রাখা আছে কফিন। তার চারদিক ঘিরে দাঁড়িয়ে রয়েছে উৎসাহী জনতা। অনেকেই ক্যামেরা তাক করে রেখেছেন কফিনের দিকে। মিশরের এক দল প্রত্নতত্ত্ববিদ খুললেন কফিনের ঢাকনা। তা সরতেই দেখা মিলল আড়াই হাজার বছরের পুরনো মমির। মিশরের সাকারা এলাকা থেকে পাওয়া গিয়েছে ওই মমি। উন্মোচনের ভিডিয়ো সেখানে উপস্থিত জনতার মতোই হামলে পড়ে দেখেছেন উৎসাহী নেটাগরিকরা।

মিশেরের পুরনো মেমফিস শহরের সাকারা প্রত্নতত্ত্ব এলাকা। সেখানেই সন্ধান মিলেছে আড়াই হাজার বছরের পুরনো মমির। মিশরের পর্যটন মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে ওই এলাকা থেকে ৫৯টি কফিন বন্দি মমি উদ্ধার করা হয়েছে। সেই কফিনগুলো ভাল অবস্থাতেই রয়েছে। সেই যুগের পুরোহিত, সমাজের সম্মানীয় ব্যক্তিদের মমিই কফিনে রয়েছে বলে মত প্রত্নতত্ত্ববিদদের। সাকারাতে ১৩টি কফিন এখনও অবধি উদ্ধার হয়েছে। সেখানে থাকা আরও ১৪টি কফিনের খোঁজও মিলেছে।

জনতার সামনে কফিন খুলে মমি বের করার দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই ভাইরাল হয়েছে। সোমবার আপলোড হতেই ৯০ লক্ষেরও বেশি বার দেখা হয়েছে সেটি। নেটাগরিকরা তা দেখে বিভিন্ন রকম মন্তব্য করেছেন। দেখুন সেই ভিডিয়ো—

Advertisement

বিরল দৃশ্য দেখে নিজেদের বিস্ময় গোপন করেননি নেটাগরিকদের একটি বড় অংশ। কেউ কেউ আবার ভয়ও পেয়েছেন কিছু সম্ভাবনার কথা ভেবে। একজন লিখেছেন, ‘‘এ রকম জিনিসে বহু বছরের পুরনো ভাইরাস বা জীবাণু থাকতে পারে। যা প্রতিরোধ করার ক্ষমতা আমাদের নেই।’’ অপর এক জন লিখেছেন, ‘‘এমনিতেই বছরটা এ রকম যাচ্ছে, খোলার জন্য আর ক’দিন অপেক্ষা করা যেত না?’’ তবে কফিন খুলে মমি দেখাতে নেটাগরিকরা মজেছেন, এতে কোনও সন্দেহ নেই।


Advertisement