×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

শেখ হাসিনার বিমানে ত্রুটির ঘটনায় তিন চিফ ইঞ্জিনিয়ার-সহ ধৃত সাত

নিজস্ব সংবাদদাতা
২২ ডিসেম্বর ২০১৬ ১২:১৭

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনায় সাত জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার রাতে ঢাকা মহানগর কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের সদস্যরা এই সাত জনকে গ্রেফতার করেন।

ধৃতেরা সবাই বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্তা বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম বিষয়ক শাখার উপকমিশনার মহঃ মাসুদুর রহমান। তিনি জানান, “প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সাত কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি দুজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। নয় জনের নামে মামলা করা হয়েছিল।”
গত ২৭ নভেম্বর জল সম্মেলনে অংশ নিতে চার দিনের সফরে হাঙ্গেরির বুদাপেস্টের যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রীর বোয়িং-৭৭৭ বিমানটি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করে। পরে বিমানটির ত্রুটি সারিয়ে তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাদ থেকে হাঙ্গেরিতে যায়।
প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, বিমানের ইঞ্জিন অয়েলের ট্যাংকে একটি নাট ঢিলে থাকাতেই ওই বিপত্তি ঘটে। এর পেছনে নাশকতা ছিল কি না তা খতিয়ে দেখতে বিমান মন্ত্রণালয়, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ তিনটি তদন্ত কমিটি করে।

আরও পড়ুন: ওয়ান ডে দলে জায়গা পেতে ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে মুস্তাফিজুরকে

Advertisement

এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার বাংলাদেশ বিমানের তিন চিফ ইঞ্জিনিয়ার-সহ নয় জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। বিমানবন্দর থানায় মামলাটি দায়ের করেন বাংলাদেশ বিমানের পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ম্যাটেরিয়েল ম্যানেজমেন্ট) উইং কমান্ডার (অব.) এমএম আসাদুজ্জামান।
আসামিরা হলেন— বাংলাদেশ বিমানের চিফ ইঞ্জিনিয়ার (প্রোডাকশন) দেবেশ চৌধুরী, চিফ ইঞ্জিনিয়ার (কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স) এসএ সিদ্দিক, চিফ ইঞ্জিনিয়ার (মেনটেন্যান্স অ্যান্ড সিস্টেম কন্ট্রোল) বিল্লাল হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার এসএম রোকনুজ্জামান, সামিউল হক, লুৎফুর রহমান, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস, জাকির হোসাইন এবং টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান।

Advertisement