১৪ জুলাই ২০২৪
Sister Nivedita University

নারীর ক্ষমতায়নে মৌ রায়চৌধুরীর স্মৃতিতে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, উদ্বোধন করল ‘সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটি’

ব্র্যাডলি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত এই উদ্যোগ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নারীদের সুবিধার্থে এবং সহায়ক ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের আকৃষ্ট করে।

এবিপি ডিজিটাল ব্র্যান্ড স্টুডিয়ো
শেষ আপডেট: ২১ জুন ২০২৪ ১৪:৩৫
Share: Save:

‘টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপ’-এর কো-চেয়ারপার্সন এবং সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটি’র গভর্নিং বডির প্রয়াত সদস্য মৌ রায়চৌধুরীর স্মরণে নতুন পদক্ষেপ করল ‘সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটি’। তাঁর স্মৃতিতে ‘মৌ রায়চৌধুরী সেন্টার ফর উইমেন্স এমপাওয়ারমেন্ট’, ‘স্কিল ডেভেলপমেন্ট এবং ট্রেনিং’ (MRCWEST) প্রশিক্ষণ কেন্দ্র শুরু করার ঘোষণা করেছে সিস্টার নিবেদিতা বিশ্ববিদ্যালয়।

MRCWEST প্রধানত ‘এমপাওয়ারিং উইমেন্স গ্লোবালি’ অর্থাৎ বিশ্ব জুড়ে নারীর ক্ষমতায়নকে সমর্থন করে। ব্র্যাডলি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত এই উদ্যোগ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নারীদের সুবিধার্থে এবং সহায়ক ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের আকৃষ্ট করে। এই উদ্যোগের মূল লক্ষ্য হল নারী উদ্যোক্তাদের ব্যবসার পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রির জন্যে একটি উল্লেখযোগ্য প্ল্যাটফর্ম প্রদান করা, যা তাঁদের বিস্তৃত বাজারে পৌঁছতে সাহায্য করবে।

সিস্টার নিবেদিতা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই নতুন পদক্ষেপ ব্র্যাডলি ইউনিভার্সিটির অধীনে পিওরিয়ার সফল উইঙ্ক হাউস দ্বারা অনুপ্রাণিত। শীঘ্রই এই উদ্যোগ পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি জেলায় মহিলা উদ্যোক্তাদের জন্যে একটি স্যাটেলাইট কেন্দ্র তৈরি করবে। এই কেন্দ্রগুলি প্রধান হাবের সঙ্গে একটি ‘হাব-অ্যান্ড-স্পোক’ মডেলে সংযুক্ত থাকবে। এই ‘এমপাওয়ারিং উইমেন্স গ্লোবালি’ প্রোগ্রামটি টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপের স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলির নেটওয়ার্ককে ব্যবহার করে রাজ্য এবং তার বাইরেও আরও অংশগ্রহণকারীকে আকৃষ্ট করতে সহায়তা করবে। ‘ড্রাগন শার্ক ট্যাঙ্ক’ মডেলের মতো একটি ‘ব্র্যান্ডেড রিয়েলিটি শো’-এর মাধ্যমে এই কর্মসূচির প্রচার করার ভাবনা রয়েছে উদ্যোক্তাদের।

মার্কিন কনসাল জেনারেল মিসেস মেলিন্ডা পাভেক নতুন কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন। এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠার প্রধান অনুপ্রেরণা ছিল টার্নার চেয়ার অফ অন্ত্রপ্রেনরশিপ ইন ফস্টার কলেজ অফ বিজনেস, ব্র্যাডলি ইউনিভার্সিটি, ইউএসএ, অধ্যাপক মেরি কনওয়ে ডাটো-অন। এই উদ্যোগ কার্যকর করতে ‘সিস্টার নিবেদিতা বিশ্ববিদ্যালয়’, ‘ব্র্যাডলি বিশ্ববিদ্যালয়’ এবং ব্রাজিল বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সহযোগিতার কথাও তুলে ধরেন তিনি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ়নেস ম্যানেজমেন্ট বিভাগের অধ্যাপিকা শর্মিষ্ঠা বন্দোপাধ্যায় ব্যাখ্যা করেছেন, কী ভাবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্র্যাডলি বিশ্ববিদ্যালয় গত ন'বছর ধরে এই ‘এম্পাওয়ারিং উইমেন্স গ্লোবালি’ প্রোগ্রামটি পরিচালনা করছে। এই কর্মসূচিতে বিপুল সংখ্যক নারী উদ্যোক্তার পণ্য প্রদর্শন তাঁদের প্রতিভা এবং উদ্ভাবনের সাক্ষী হওয়ার একটি চমৎকার সুযোগ প্রদান করেছে।

এই প্রতিবেদনটি ‘সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটি’-র সঙ্গে আনন্দবাজার ব্র্যান্ড স্টুডিয়ো দ্বারা যৌথ উদ্যোগে প্রকাশিত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Women Women Empowerment Mou Roy Chowdhury
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:

Share this article

CLOSE