দু চাকা নিয়ে পাহাড় চড়ার শখ বহুদিনের?এখনই বাইক কিনে উঠতে পারছেন না?আপনার চিন্তার দিন শেষ। চলতি বছরেই সেপ্টেম্বর মাসে গুরুগ্রাম-এর ই-স্কুটার প্রস্তুতকারী সংস্থা '২২ মোটরস'' আনতে চলেছে 'হিল-অ্যাসিস্ট' যুক্ত ই-স্কুটার যা ভারত তথা বিশ্বে এই প্রথমবার।এর বাজার মুল্য ৭৪ হাজার ৭৪০ টাকা।

কোন চড়াই-উতরাই পার করার জন্য 'হিল অ্যাসিস্ট'-ই একমাত্র ভরসা। উঁচু জায়গায় ওঠার সময় স্কুটার যাতে পেছন দিকে না গড়িয়ে যায় এবং ব্যবহারকারী যাতে অ্যাকসিলারেট করার জন্য উপযুক্ত সময় পান তার জন্যই এই ফিচার-টির আবির্ভাব। এর আগে বিভিন্ন ধরনের চারচাকা বা বাইকে এই ফিচার থাকলেও ই-স্কুটারে এই প্রথমবার।

এ ছাড়াও নতুন এই স্কুটারটিতে রয়েছে 'ক্লাউড বেসড ডেটা অ্যানালিসিস'(বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা সংক্রান্ত তথ্য এবং বিশ্লেষণ)এবং 'ইন্টেলিজেন্ট কলিশন ডিটেক্টশন  অ্যালার্ট'(ব্যবহারকারী স্কুটার চালনোর সময় কোনও দুর্ঘটনার সম্মুখীন হলে কাছাকাছি হাসপাতালে বা প্রিয়জনদের কাছে খবর পৌঁছনোর ব্যবস্থা)—এর মতো উন্নতমানের ফিচারস। এ ছাড়াও থাকছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স সিস্টেম যা ব্যবহারকারীর আচরণ বুঝতে সাহায্য করবে। এর টর্ক হল ৯০ নিউটন মিটার।এক চার্জেই পার করা যাবে ১৫০ কিলোমিটার। চার্জ শেষ হয়ে গেলেও থাকছে ‘ড্র্যাগ মোড’ ফিচার যার সাহায্যে স্কুটারটিকে বেশি পরিশ্রম ছাড়াই বিনা বাধায় উপযুক্ত স্থানে ঠেলে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে। এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৬০ কিলোমিটার।আপাতত নীল এবং ধূসর রঙে মিলবে এই অত্যাধুনিক ই-স্কুটার।

'২২ মোটরস'- এর দ্বারা নির্মিত ই-স্কুটার গুলিতে আগে থেকেই 'রিভার্স মোড', 'ক্রুস মোড' এবং ' ড্র্যাগ মোড' ফিচারস গুলি থাকার ফলে তা অন্যান্য কোম্পানির তুলনায় হয়ে উঠেছে অনেক বেশী আকর্ষণীয় ও অভিনব। 'হিল অ্যাসিস্ট' ফিচারটি নিঃসন্দেহে তাতে অন্য মাত্রা প্রদান করেছে।

কতটা প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে নতুন ধরনের এই ই-স্কুটার? নজর থাকবে সে দিকেই।

আরও পড়ুন: বাজারে এল টয়োটার প্রথম হ্যাচ-ব্যাক গাড়ি ‘গ্লানজা'। দাম...