রেস্তোরাঁতে খেতে গেলেন। যেই না মাখোমাখো চিকেন কারির মধ্যে তুলতুলে রুমালি রুটি ডুবিয়ে মুখে পুরতে গেলেন, ওমনি সাড়ে সর্বনাশ। প্লেট থেকে মুখের মাঝপথেই মাধ্যাকর্ষণের আকর্ষণে টুপ করে হলুদে-তেলে মাখানো বেশ খানিকটা কারি হয়তো ঝরে পড়ল সাধের জামাটার ওপর। বাড়ি এসে অনেক ঘষে, অনেক সময় ও ডিটারজেন্টের নষ্ট করেও জেদি দাগ যেমন কে তেমনই। এই সমস্যার সমাধানেই এ বার হাল ধরল একটি ওয়াশিং মেশিন প্রস্তুতকারক সংস্থা।

কী উপায় বাতলালো তারা? এ বার থেকে এই সংস্থার ওয়াশিং মেশিনে থাকবে কারি বোতাম। সংস্থার দাবি, যে কোনও খাবারের দাগ জামাকাপড় থেকে সহজেই তুলে ফেলবে এই বোতাম।

আরও পড়ুন: ‘নয়ি সোচ’ বিজ্ঞাপনের জন্য কত টাকা নিয়েছেন আমির?

সংস্থা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আপাতত শুধুমাত্র ভারতীয় বাজারেই এই নতুন বোতাম লঞ্চ করা হচ্ছে। ওয়াশিং মেশিনে নতুন এই ফিচারটি আনার আগে দু’বছর ধরে জলের তাপমাত্রা ও ওয়াটার ফ্লো নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়েছে সংস্থা। অবশেষে নতুন ‘কারি’ বোতামটি বাজারে আনতে চলেছে আন্তর্জাতিক এই সংস্থা।

এই মুহূর্তে ভারতের মাত্র ১০ শতাংশ বাড়িতেই ওয়াশিং মেশিন আছে। বেশিরভাগ মানুষই কাপড় থেকে থেকে জেদি দাগ তোলার জন্য হাতের উপরই ভরসা রাখেন। সংস্থা জানিয়েছে, আগামী বছর মার্চের মধ্যে ৩০ হাজার ওয়াশিং মেশিন বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে মাঠে নামছে তারা। নতুন সুবিধাযুক্ত এই মেশিনটির দাম হতে পারে ২২ হাজার টাকার মতো। যা বাজার চলতি অন্য মেশিনগুলোর থেকে ১০ শতাংশ বেশি।