• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গ্রুহের চাবি বন্ধনের হাতে

Bandhan BAnk

এক ঢিলে দুই পাখি।

এক দিকে, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ফরমান মেনে প্রতিষ্ঠানে প্রোমোটারের অংশীদারি কমানো। অন্য দিকে, গৃহঋণ সংস্থা অধিগ্রহণ করে ওই বাজারে ব্যবসার পরিসর চওড়া করা। এ দিনের ঘোষণা মাফিক গৃহঋণ সংস্থা গ্রুহ ফিনান্স সংশ্লিষ্ট সমস্ত নিয়ন্ত্রকের ছাড়পত্র পাওয়ার পরে শেষমেশ বন্ধন ব্যাঙ্কের সঙ্গে মিশে গেলে এ ভাবেই এক পদক্ষেপে দুই উদ্দেশ্য সিদ্ধ হবে শহরের ব্যাঙ্কটির।

বন্ধন ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, এই অধিগ্রহণ সম্পন্ন হবে শেয়ার বিনিময়ের মাধ্যমে। তার হাত ধরে সেখানে প্রোমোটারের অংশীদারি নেমে আসবে ৬১ শতাংশে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নিয়ম অনুযায়ী, প্রোমোটারদের এর পরেও ছাড়তে হবে আরও ২১% শেয়ার। কর্ণধার চন্দ্রশেখর ঘোষের দাবি, ‘‘সেই ব্যবস্থাও খুব শীঘ্রই করব আমরা।’’

এ দিনই গ্রুহ অধিগ্রহণের প্রস্তাবে সায় দিয়েছে দুই সংস্থার পরিচালন পর্ষদ। চন্দ্রশেখরবাবু জানান, এ বার রিজার্ভ ব্যাঙ্ক-সহ বিভিন্ন কর্তৃপক্ষের সায় পেতে আবেদন করা হবে। এর ফলে গ্রুহ পরিকাঠামো আসবে বন্ধনের হাতে। মূলত কম খরচের বাড়ি তৈরির জন্য ঋণ দেওয়ার সংস্থা হিসেবে যারা পরিচিত। 

পরিচিতি

• এইচডিএফসি লিমিটেডের শাখা গ্রুহ ফিনান্স।
• ন্যাশনাল হাউসিং ব্যাঙ্ক স্বীকৃত গৃহঋণ সংস্থা।
• বাড়ি কেনা, তৈরি, মেরামত, সাজানো বা বাড়ানো— সব কাজের জন্যই ধার দেয়।
• ১৯৮৮ সালে গুজরাতের আমদাবাদে পথ চলা শুরু।
• ২০১৭-১৮ সালে গড় 
ঋণ প্রদানের অঙ্ক ৯.৪০ লক্ষ টাকা।
• ব্যবসা ছড়ানো ১১টি রাজ্যে। শাখা ১৯৫টি। মোট ১২৫ জেলায় উপস্থিতি।

হাতবদল

• বন্ধন ব্যাঙ্কে মিশছে গ্রুহ ফিনান্স।
• ২ টাকা মূল দামের প্রতি ১,০০০টি গ্রুহর শেয়ারের বিনিময়ে দেওয়া হবে বন্ধন ব্যাঙ্কের ১০ টাকা মূল দামের ৫৬৮টি ইকুইটি শেয়ার। 

গ্রুহর সিংহ ভাগ শেয়ার আছে গৃহঋণ সংস্থা এইচডিএফসির হাতে। বন্ধনের সঙ্গে মেশার জন্য সংস্থা দু’টির মধ্যে শেয়ার বিনিময়ের যে অনুপাত ঠিক হয়েছে, তাতে বন্ধন ব্যাঙ্কের ২১ শতাংশের অংশীদার হবে গ্রুহর শেয়ারহোল্ডাররা। এই সুবাদে এইচডিএফসির হাতে আসবে বন্ধনের ১৫% শেয়ার। বাকি ৬% যাবে অন্য শেয়ারহোল্ডারদের কাছে।

গ্রুহ ফিনান্স বন্ধন ব্যাঙ্কে মিশলে শেয়ার মূল্যের নিরিখে তাদের সম্মিলিত মূল্যায়ন হবে ৮০ হাজার কোটি টাকা। ব্যাঙ্কের মোট শাখা হবে ৪,১৮২টি। এটিএমের সংখ্যা দাঁড়াবে ৪৭৬টিতে। এই অধিগ্রহণের দৌলতে প্রোমোটারের শেয়ার কমানোর রাস্তায় থাকার দাবি বন্ধন ব্যাঙ্ক জোরালো ভাবে পেশ করতে পারবে বলেও ধারণা সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন