ভবিষ্যতে শীর্ষ পদ কারা সামলাতে পারেন, আগে থেকেই তার খোঁজ এ বার শুরু হয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কেও। এত দিন মূলত বেসরকারি ব্যাঙ্কে যে রেওয়াজ ছিল। এর আগে দু’একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে তা করা হলেও, সামগ্রিক ভাবে তাদের সবক’টিতে এই ছবি দেখা যায়নি। 

ভবিষ্যতের কর্তা বাছতে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির ৪৫০ জন উচ্চপদস্থ অফিসারদের মধ্যে ৭৫ জনকে চিহ্নিত করেছে ব্যাঙ্ক বোর্ড ব্যুরো (বিবিবি)। জানানো হয়েছে, তাঁদের আন্তর্জাতিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। একই সঙ্গে কাজের ভিত্তিতে কর্মীদের আর্থিক সুবিধা বৃদ্ধির কথা রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে ভাবতে বলেছে। বলা হয়েছে ব্যাঙ্কের শেয়ার দেওয়ার (এমপ্লয়িজ স্টক অপশন) মাধ্যমে অফিসারদের কাজে উৎসাহিত করার কথাও। ২০১৮ সালের অক্টোবর থেকে গত মার্চের রিপোর্টে এই প্রস্তাব দিয়েছে বিবিবি। 

উল্লেখ্য, এ বার ব্যাঙ্ক শিল্পে কর্মী ও অফিসারদের জন্য নতুন বেতন চুক্তি নিয়ে যে আলোচনা চলছে, তাতে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের সংগঠন ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কস অ্যাসোসিয়েশন (আইবিএ) বেতনের একটা অংশ কাজের ভিত্তিতে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। পাশাপাশি তাদের প্রস্তাব, উপরের দিকের চারটি শ্রেণির অফিসারদের বেতন পুরোপুরি কর্তৃপক্ষই ঠিক করুন।