বাজেট বক্তৃতায় কেন্দ্রের নীতি ঘোষণার প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য, অর্থনীতিবিদ বিবেক দেবরায়। তাঁর দাবি, ২০২৫ সালে ভারত ৫ লক্ষ কোটি ডলারের অর্থনীতি হবে ঠিকই। কিন্তু তখন ওই বক্তৃতার আদৌ দরকার হবে কি না সে ব্যাপারে সংশয়ী তিনি।

এ বারের বাজেট ও দ্বিতীয় দফায় মোদী সরকারের আর্থিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে শুক্রবার কলকাতায় স্বদেশি রিসার্চ ইনস্টিটিউট ও শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় রিসার্চ ফাউন্ডেশনের এক সভায় বিবেক বলেন, বাজেট সরকারের আয়-ব্যয়ের হিসেব। অথচ সেখানে নীতি সংক্রান্ত বড় বড় ঘোষণা করাই দস্তুর। তাঁর প্রশ্ন, ‘‘বছরে আরও ৩৬৪ দিন আছে। বাজেটের দিনেই কেন সব ঘোষণা হবে?’’ 

সরকারি ব্যয়ের ক্ষেত্রে সংবিধান মেনে কেন্দ্র-রাজ্যের ভূমিকাও খতিয়ে দেখার কথা বলেন বিবেক। তাঁর দাবি, সংবিধানের সপ্তম তফসিল অনুযায়ী স্বাস্থ্য রাজ্যের তালিকাভুক্ত। তা হলে কেন কেন্দ্র তাতে খরচ করবে? তাঁর মতে, গুরুত্বের নিরিখে রেল, জাতীয় সড়ক, প্রতিরক্ষায় অংশ নেওয়া উচিত রাজ্যগুলির। তাই সরকারি ব্যয়ে কী কী বিষয় যুক্ত হওয়া উচিত, তা ঠিক করতে কেন্দ্র-রাজ্য মিলে জিএসটি পরিষদের মতো সংস্থা গড়া জরুরি।