• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বন্ড ইটিএফে সায় মন্ত্রিসভার

MOney
প্রতীকী ছবি।

ভারত ২২ এবং সিপিএসই ইটিএফ— শেয়ার বাজার নির্ভর (ইকুইটি) এই দুই এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড বা ইটিএফ আনা হয়েছিল আগেই। আর এ বার কেন্দ্রীয় সরকারি ও রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির টাকা তোলার রাস্তা আরও সহজ করার লক্ষ্য নিয়ে বাজারে ঋণপত্র নির্ভর (বন্ড) ইটিএফ ছাড়তে চলেছে কেন্দ্র। এটিই হবে ভারতে প্রথম কর্পোরেট বন্ড মিউচুয়াল ফান্ড। বুধবার এ বিষয়ে সায় দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। তার পরেই অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এই ফান্ড আনার কথা ঘোষণা করেন।

বহু দিনের অভিযোগ যে, বন্ডের বাজারে সাধারণ ক্ষুদ্র লগ্নিকারীরা তেমন ভাবে পা রাখতে পারেন না। অনেক সময়ে বিষয়টি নিয়ে স্বচ্ছ ধারণা না-থাকায়, আবার কখনও বা তার ইউনিটের দর অনেক চড়া হওয়ায়। অর্থমন্ত্রী জানান, এই ভারত বন্ড ইটিএফের প্রতিটি ইউনিটের দর হবে ১০০০ টাকা। তাই কম টাকা দিয়েও ক্ষুদ্র লগ্নিকারীরা ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারবেন। মেয়াদ শেষের আগে সহজেই ফান্ডের ইউনিট ভাঙিয়ে বেরিয়ে আসার সুবিধাও থাকবে তাঁদের সামনে। ফলে প্রয়োজনের সময়ে টাকা জোগাড়ে অসুবিধা হবে না। সর্বোপরি, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির ‘AAA’ রেটিংয়ের বন্ডে এই ফান্ড লগ্নি করবে বলে সুরক্ষাও হবে তুলনায় বেশি।

কেন্দ্রের আশা, এই ইটিএফের মাধ্যমে বন্ডের বাজার আরও বেশি ছড়িয়ে দিতে সুবিধা হবে। পাশাপাশি, কেন্দ্রীয় ও রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির পক্ষে বাজার থেকে টাকা তোলা সহজ হবে। মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থাগুলির সংগঠন অ্যামফির সিইও এন এস ভেঙ্কটেশের মতে, এই সিদ্ধান্তে কম খরচে সরকারি সংস্থার বন্ডে টাকা ঢালা যাবে। ফলে লগ্নিকারীদের সামনে বিনিয়োগের নতুন গন্তব্য খুলবে। এডেলওয়েজ অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি এই বন্ড ফান্ড পরিচালনা করবে। সংস্থার সিইও রাধিকা গুপ্তের দাবি, বিভিন্ন শিল্পের রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বন্ড বাছাই করেই এই ফান্ড তৈরি করা হবে। ৩ এবং ১০ বছরের মেয়াদের ফান্ডগুলি সম মেয়াদের বন্ডেই টাকা ঢালবে।

বন্ড ইটিএফ কী

• বাজারে বিভিন্ন সংস্থার ছাড়া বন্ড (ঋণপত্র) নিয়ে তৈরি মিউচুয়াল ফান্ড।
• এই ফান্ডের ইউনিট স্টক এক্সচেঞ্জে কেনাবেচা হয়, 
তাই নাম এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড (ইটিএফ)।

নতুন ঘোষণা

• এই প্রথম বাজারে আসবে কর্পোরেট বন্ড ইটিএফ, নাম ভারত বন্ড ইটিএফ।
• বুধবার এতে সায় দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।
• এই ফান্ড লগ্নি করবে কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা, রাষ্ট্রায়ত্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং অন্যান্য সরকারি সংস্থার বন্ডে।
• প্রাথমিক ভাবে যাদের রেটিং ‘AAA’, সেই সব বন্ডই বেছে নেওয়া হবে এ জন্য।
• এক ইউনিটের ন্যূনতম দাম ১০০০ টাকা।
• প্রথম পর্যায়ে ডিসেম্বরেই এই বন্ড ইটিএফ ছাড়া হতে পারে। তার পরে আসবে প্রতি ছ’মাস অন্তর। 
• প্রথমে দু’টি মেয়াদের বন্ড ফান্ড ছাড়া হবে— ৩ এবং ১০ বছর।
• লগ্নিকারীরা চাইলে মেয়াদ শেষ হওয়া পর্যন্ত ইটিএফ ধরে রাখতে পারবেন। অথবা মেয়াদ শেষের আগে শেয়ার বাজারে তা ভাঙিয়ে বেরিয়ে আসতে পারবেন।
লগ্নিকারীদের 

কী কী সুবিধা

• রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার ছাড়া ‘AAA’ বন্ডে এই ইটিএফ লগ্নি করবে বলে সুরক্ষা তুলনায় বেশি।
• ১০০০ টাকা ন্যূনতম লগ্নি হওয়ায় ক্ষুদ্র লগ্নিকারীদের কাছে এর আকর্ষণ থাকবে।
• ভারত বন্ড ইটিএফ করযোগ্য। তবে লগ্নিকারীরা করে মূল্যবৃদ্ধির হার বাদ যাওয়ার (ইন্ডেক্সেশনের) সুবিধা পাবেন।

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন