• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

খোলা, তবে সময় কমছে ব্যাঙ্কে 

Bank
প্রতীকী ছবি

রাজ্যে কলকাতা-সহ বেশ কিছু জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হলেও চালু থাকবে ব্যাঙ্ক। তবে পুরো নয়, দিনে সীমিত সময়ের জন্য ব্যাঙ্ক খোলা রাখা হবে। পাশাপাশি, নির্দিষ্ট কিছু জরুরি ব্যাঙ্কিং পরিষেবা ছাড়া বন্ধ থাকবে বাদবাকি পরিষেবা।

রাজ্য ভিত্তিক ব্যাঙ্কার্স কমিটি (এসএলবিসি) জানিয়েছে, ব্যাঙ্ক খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টো পর্যন্ত। টাকা জমা দেওয়া ও তোলা যাবে। আরটিজিএস এবং নেফ্টের মাধ্যমে তা পাঠানোও যাবে। চালু থাকবে চেক ক্লিয়ারিং। এ ছাড়া প্রবীণ নাগরিকদের জন্য পেনশন তোলার সুবিধা থাকবে। কর জমা নেওয়া-সহ সরকারি কাজও হবে।

সেই সঙ্গে সিদ্ধান্ত হয়েছে, ৫ কিলোমিটারের মধ্যে একই ব্যাঙ্কের একাধিক শাখা থাকলে, একটি থেকেই সবক’টির কাজ চালানো হবে। বাকিগুলি আপাতত বন্ধ থাকবে। ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের সংগঠন আইবিএ জানিয়েছে, খোলা শাখাগুলিতে ন্যূনতম কর্মী দিয়ে কাজ চালানো হবে। কর্মীরা কে কবে আসবেন, তা নিজেরা কথা বলে ঠিক করবেন।

পরিবহণ ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ থাকলে কর্মীরা কী ভাবে ব্যাঙ্কে আসবেন, সেই প্রশ্ন তুলেছে কর্মী সংগঠনগুলি। এআইবিইএ-র সভাপতি 

রাজেন নাগর ও অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক অফিসার্স কনফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক সঞ্জয় দাস বলেন, ‘‘পরিষেবা চালু রাখতে সহযোগিতা করার জন্য সদস্যদের বলেছি। তবে এটাও বলেছি যে, পরিবহণ চালু না-থাকলে ও কর্তৃপক্ষ অফিসে আসার বিকল্প ব্যবস্থা না-করলে, যাঁরা পায়ে হেঁটে আসতে পারবেন, তাঁরাই শুধু আসবেন।’’

সঞ্জয়বাবু বলেন, ‘‘অন্যান্য আপৎকালীন অবস্থার মতো এ বারেও ব্যাঙ্কের কর্মীরা অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে পরিষেবা দেবেন। যাঁরা ক্যাশ কাউন্টারে বসে টাকা গোনেন, তাঁদের ঝুঁকি সব থেকে বেশি। কারণ, টাকার মাধ্যমে যে কোনও জীবাণু সংক্রমণের সম্ভাবনা প্রবল। গ্রাহকদের কাছে আর্জি, তাঁরাও যেন কর্মী-অফিসারদের সঙ্গে সহযোগিতা করেন।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন