×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

ফের বাড়ল আয়কর রিটার্নের সময়, ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত, জানাল অর্থ মন্ত্রক

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ ২৩:৫২
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

ব্যক্তিগত করদাতাদের জন্য সাময়িক স্বস্তি। আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা ফের ১০ দিনের জন্য বাড়িয়ে আগামী ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত করল অর্থ মন্ত্রক। বুধবার এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

ব্যক্তিগত করদাতাদের পাশাপাশি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের জন্য আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়ও বাড়ানো হয়েছে। একটি বিবৃতিতে অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, সংস্থার ক্ষেত্রে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এই সুবিধা পাওয়া যাবে।

অতিমারির আবহে এর আগেও একাধিক বার আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। রিটার্ন জমা দেওয়ার জন্য নির্ধারিত সময়সীমা ছিল চলতি বছরের ৩১ মার্চ। তবে করোনা সংক্রমণের মোকাবিলায় ২৫ মার্চ থেকে দেশ জুড়ে লকডাউন শুরু হলে তা বাড়িয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত করা হয়েছিল। ফের তা এক মাস বাড়িয়ে ৩১ জুলাই করা হয়। এর পর তৃতীয় দফায় ৩০ সেপ্টেম্বর এবং চতুর্থ দফায় সেই সময়সীমা ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল। তবে সেই সময়সীমাও বাড়িয়ে রিটার্ন দাখিলের শেষ তারিখ ৩১ ডিসেম্বর করা হয়। এ বার ফের তা বাড়ানো হল।

Advertisement

আরও পড়ুন: বাড়ল নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ, ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত বিমান সংযোগ বন্ধ ব্রিটেনের সঙ্গে

আরও পড়ুন: ষষ্ঠ বৈঠকে গলল বরফ, দু’টি বিষয়ে সহমত কৃষকরা, দাবি কেন্দ্রের

অর্থ মন্ত্রকের বিবৃতি অনুযায়ী, ২০১৯-’২০ অর্থবর্ষের এবং ২০২০-’২১ মূল্যায়ন বর্ষের জন্যই আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া, যে সমস্ত ব্যক্তিগত করদাতার অ্যাকাউন্ট অডিটের প্রয়োজন নেই এবং যাঁরা আইটিআর-১ অথবা আইটিআর-৪ ফর্মের মাধ্যমে রিটার্ন দাখিল করেন, তাঁদের জন্যই এই বর্ধিত সময়সীমা (১০ জানুয়ারি পর্যন্ত) লাগু হবে। তবে যাঁদের অ্যাকাউন্ট অডিটের প্রয়োজন রয়েছে (যেমন, কোনও ব্যবসায়িক সংস্থার অংশীদার) অথবা যাঁরা আন্তর্জাতিক লেনদেনে জড়িত থাকার জন্য সেই সংক্রান্ত রিপোর্ট দাখিল করেছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে সময় বাড়িয়ে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করা হয়েছে।

সাধারণ করদাতাদের পাশাপাশি প্রত্যক্ষ কর নিয়ে বিবাদ সমাধানের প্রকল্প ‘বিবাদ সে বিশওয়াস’-এর আওতায় রিটার্ন দাখিলের সময়ও বাড়ানো হয়েছে। অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, ওই প্রকল্পের আওতায় যাঁরা রিটার্ন দাখিল করবেন, তাঁদের জন্য আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া, ২০১৯-’২০ অর্থবর্ষে বার্ষিক জিএসটি রিটার্ন দাখিলের সময় আরও দু’মাস বাড়িয়েছে সরকার। তা করা যাবে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

বিভিন্ন শ্রেণির করদাতাদের জন্য বর্ধিত সময়সীমা ভিন্ন কেন? এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, করোনার মতো অতিমারিতে সব শ্রেণির করদাতাদের স্বস্তি দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মন্ত্রক সূত্রে খবর, ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত ২০১৯-’২০ অর্থবর্ষের এবং ২০২০-’২১ মূল্যায়ন বর্ষের ৪.৫৪ কোটিরও বেশি আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে। তুলনামূলক ভাবে, গত অর্থবর্ষে ৪.৭৭ কোটি রিটার্ন দাখিল করা হয়েছিল।

Advertisement