মূলত জেট এয়ারওয়েজের উড়ান বাতিলের জেরে সার্বিক ভাবে দেশে বিমান ভাড়া মাত্রাতিরিক্ত চড়ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বিমান পরিবহণ নিয়ন্ত্রক ডিজিসিএ জানাল, যাত্রীদের স্বার্থ রক্ষায় টিকিটের দামের উপর প্রতি দিন নজর রাখবে তারা। কোনও ভাবে তা মাত্রা ছাড়ানোর অভিযোগ উঠলেই সংশ্লিষ্ট সংস্থার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।

যাত্রীদের সুরক্ষা ও অধিকার রক্ষার লক্ষ্যে বিমান মন্ত্রকের সচিব প্রদীপ সিংহ খারোলাকে উর্ধ্বমুখী বিমান ভাড়া-সহ নানা বিষয় খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন বলে টুইটে নিজেই জানান, বিমানমন্ত্রী সুরেশ প্রভু। তার পরেই সব বিমান সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসে ডিজিসিএ। জানায়, পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে তারা। যাত্রী বেশি হয়, এমন ১০টি রুটের ভাড়া ‘সন্তোষজনক’ পর্যায়ে নামাতে  সংস্থাগুলিকে নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

জেটের উড়ান সংখ্যা কমার সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন রুটে বিমান যাত্রায় কিছু বিরূপ প্রভাব পড়ছে। ডিজিসিএ-র এক কর্তা বলেন, ‘‘রোজ ভাড়ার ওঠাপড়ায় চোখ থাকবে। সংস্থাগুলির অবশ্য দাবি, ইতিমধ্যেই কিছু টিকিটের দাম কমিয়েছে তারা।’’ 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯