ক’দিন আগেই সিবিআই লুক আউট নোটিস জারি করেছে আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের প্রাক্তন সিইও চন্দা কোছর, স্বামী দীপক কোছর ও ভিডিয়োকন কর্তা বেণুগোপাল ধুতের নামে। এ বার তাঁদের বিরুদ্ধে ঋণ মঞ্জুরি সংক্রান্ত প্রতারণা ও দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তে নেমে চন্দা ও ধুতের বাড়ি, অফিসে তল্লাশি চালাল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। অন্তত পাঁচটি অফিস এবং বাড়িতে (দক্ষিণ মুম্বইয়ে চন্দার বাড়ি-সহ) শুক্রবার হাজির হয় তদন্তকারী সংস্থাটি।

সূত্রের খবর, এর আগে গত মাসে ধুতের ভিডিয়োকন ইন্ডাস্ট্রিজ এবং দীপকের সংস্থা নিউপাওয়ার রিনিউয়েবল্‌সের চারটি অফিসে তল্লাশি চালিয়েছিল সিবিআই।

আজ ইডি জানিয়েছে, কালো টাকা প্রতিরোধ আইনের আওতায় মুম্বই এবং ঔরঙ্গাবাদে ওই তল্লাশি চালানো হয়েছে। সূত্র জানিয়েছে, চন্দা ও দীপকের আত্মীয় মহেশ পুগলিয়ার সঙ্গেও কথা বলেছেন তদন্তকারী অফিসারেরা। জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে ধুতকে। তবে কোনও কিছু বাজেয়াপ্ত বা উদ্ধার করা হয়েছে কি না, তা রাত পর্যন্ত জানা যায়নি।

ভিডিয়োকনকে ঋণ মঞ্জুর করা নিয়ে অনিয়মের অভিযোগে চন্দা, দীপক ও ধুতের বিরুদ্ধে আগের মাসে মামলা করেছিল সিবিআই। তার পরেই তিন জনের নামে জারি হয় লুক আউট নোটিস। যাতে কেউ দেশ ছাড়তে না পারেন এবং তেমন কোনও চেষ্টা হলে চন্দা, দীপক বা ধুতকে আটক করে তদন্তকারী সংস্থার হাতে তুলে দিতে পারেন অভিবাসন কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, সিবিআই এফআইআর করার পরেই কালো টাকা প্রতিরোধ আইনে গত মাসে তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করেছিল ইডি। এ দিন সেই মামলাতেই এই তল্লাশি চালাল তারা।