• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সর্বকালীন উচ্চতায় সোনা-রুপো, করোনার ত্রাসে মূল্যবান ধাতুতে লগ্নির ঝোঁক

Gold Silver
প্রতীকী ছবি।

রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছে গেল সোনা-রুপোর দাম। বুধবার মাল্টি কমোডিটি এক্সচেঞ্জে ১০ গ্রাম সোনার দাম বেড়ে পৌঁছে গেল ৫০ হাজারেরও উপরে, যা সর্বকালীন রেকর্ড। সমান তালে বেড়ে এক কেজি রুপোর দামও ৬০ হাজার ৭৮২ টাকায় পৌঁছে গিয়েছে। এই দামও এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ। দুই ধাতুরই দাম ভবিষ্যতে আরও বাড়বে বলেই মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা।

শেয়ার বাজারে অস্থিরতা তৈরি হলেই নিরাপদ লগ্নি হিসেবে হিসেবে সোনাকে বেছে নেন বিনিয়োগকারীরা। গত কয়েক মাসে বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের জেরে শেয়ার বাজারে ধস নেমেছিল। সব দেশই সেই ধাক্কা কিছুটা সামলে উঠলেও শেয়ারে বিনিয়োগের ঝুঁকি এখনও কাটেনি। কারণ পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে, এমন আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না বিশেষজ্ঞদের একাংশ। আর সেই আশঙ্কায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকেই সোনা-রুপোয় বিনিয়োগ শুরু করেছিলেন লগ্নিকারীরা। সেই প্রবণতা এখনও অব্যাহত থাকার কারণেই এই সোনার দৌড় শুরু হয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

মঙ্গলবার বাজার বন্ধ হওয়ার সময় ১০ গ্রাম সোনার দাম ছিল ৪৯৫২৭ টাকা। বুধবার সেই দাম বেড়ে ১১.০৩ মিনিটে ১ শতাংশ বেডে় পৌঁছে যায় ৫০ হাজার ১৭ টাকা। এটাই এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ। তবে বেলার দিকে বাজারে পড়তির কারণে সোনার দাম কিছুটা কমেছে। রুপো লাফিয়েছে আরও বেশি। মঙ্গলবার ৫৭ হাজার ৩৪২ টাকায় বন্ধ হয়েছিল। বুধবার ৫ শতাংশেরও বেশি বেড়ে সর্বোচ্চ দাম উঠেছে ৬০ হাজার ৭৮২ টাকা। এটাও সর্বকালীন রেকর্ড।

আরও পড়ুন: ফাইভ-জি এলে কী কী হবে, সত্যিই ১০০ গুণ বেড়ে যাবে গতি?

আরও পড়ুন: লাদাখে তীক্ষ্ণ নজরদারি, বিশ্বের সবচেয়ে হালকা ও দ্রুতগতির ড্রোন পেল ভারতীয় সেনা

মুম্বইয়ে ভারতের স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের বৃহত্তম সংগঠন ইন্ডিয়া বুলিয়ান অ্যান্ড জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (আইবিজেএ) জানিয়েছে, জিএসটি বাদে মঙ্গলবার বাজার বন্ধের আগে ১০ গ্রাম গহনার সোনার বিক্রয় মূল্য ছিল ৪৯,৪৪০ টাকা। এক কেজি রুপোর দাম ছিল ৫৪,৮৫০ টাকা। বুধবার দুই ধাতুই রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছে গেল।’’ তবে বিভিন্ন রাজ্য সরকারের ট্যাক্স ও মজুরির পার্থক্যের কারণে রাজ্যভিত্তিক এই গহনার সোনার দাম আলাদা হয়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন