• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পূর্বাভাসে অনিশ্চয়তা, বাড়ছে শঙ্কা

Care
প্রতীকী ছবি।

ঘরবন্দি দশা কাটিয়ে অর্থনীতির চাকা ধীরে ধীরে চলতে শুরু করলেও, এখনও তাতে বিধিনিষেধ রয়েছে অনেক। কবে তা স্বাভাবিক গতি পাবে, তা-ও বলতে পারছেন না কেউ। বৃহস্পতিবার মূল্যায়ন সংস্থা কেয়ার রেটিংসের বক্তব্য, এখন যা পরিস্থিতি তাতে অর্থনীতির উপর থেকে মেঘ কিছুটা কাটতে তৃতীয় ত্রৈমাসিকের শেষ কিংবা চতুর্থ ত্রৈমাসিকের শুরু গড়িয়ে যেতে পারে। তবে  তাতেও ২০২০-২১ অর্থবর্ষে ভারতের অর্থনীতি সরাসরি ৬.৪% সঙ্কুচিত হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে তারা। একই সঙ্গে জানিয়ে রেখেছে, অবস্থা এখন নিয়মিত বদলাচ্ছে। তার উপরেই নির্ভর করছে অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানো। ফলে এই অবস্থায় সমীক্ষা করা এবং পূর্বাভাস দেওয়াও হয়ে দাঁড়িয়েছে কঠিন। এ দিন আর এক মূল্যায়ন সংস্থা ফিচ রেটিংসও জানিয়েছে, অর্থনীতির সঙ্কোচন হতে পারে ৫%। 

মে মাসের সমীক্ষায় কেয়ার রেটিংস জানিয়েছিল, জিডিপির সঙ্কোচন হতে পারে ১.৫-১.৬%। সেই সময়ে তারা ধরে নিয়েছিল, ওই মাসের শেষেই লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসতে পারবে দেশ। সে ক্ষেত্রে অর্থবর্ষের দ্বিতীয়ার্ধে গতি ফিরবে ব্যবসা-বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে। কিন্তু সেই পূর্বাভাস মেলেনি। জুন থেকে লকডাউন শিথিল হলেও বহু ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ এখনও বহাল। নতুন সমীক্ষায় তাদের বক্তব্য, এখন যা পরিস্থিতি তাতে অর্থনীতির দুই-তৃতীয়াংশ ক্ষেত্রের ৫০-৭০% অংশ তৃতীয় ত্রৈমাসিকের শেষে স্বাভাবিক হতে পারে। তবে বৃদ্ধির মুখ দেখতে পারে কৃষি ও সরকারি ক্ষেত্র। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন