ফ্লিপকার্টের পরে এ বার রাজ্যে লজিস্টিক্স হাব বা পণ্য পরিবহণ কেন্দ্র গড়ছে মহীন্দ্রা গোষ্ঠী। খড়্গপুরে রাজ্য শিল্পোন্নয়ন নিগমের শিল্প তালুকে তাদের গাড়ির যন্ত্রাংশ মজুত রাখতে এবং তা পূর্ব ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে জোগান দিতে কেন্দ্রটি গড়ছে তারা। এতে লগ্নি হবে ১৫০ কোটি টাকা। সংস্থাটির দাবি, এ রাজ্যে এটিই তাদের প্রথম বিনিয়োগ।

দুই ও চার চাকার গাড়ি, ট্রাক, নির্মাণ যন্ত্র ও ট্র্যাক্টর তৈরি করে মহীন্দ্রা অ্যান্ড মহীন্দ্রা। এ রাজ্যে তারা গাড়ি কারখানা না গড়লেও সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, এই যন্ত্রাংশ কেন্দ্রের গুরুত্ব যথেষ্ট। সংস্থার যন্ত্রাংশ শাখার প্রধান কর্তা হেমন্ত সিক্কা শনিবার জানান, এখন পুণে থেকে পশ্চিমবঙ্গে যন্ত্রাংশের জোগানে দিতে সপ্তাহখানেক ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে পাঠাতে দিন পনেরো সময় লাগে। কেন্দ্রটি চালু হলে সর্বত্রই অনেক কম সময়ে তা পাঠানো যাবে। এ রাজ্য ছাড়াও বিহার, ওড়িশা, ঝাড়খণ্ডেও যন্ত্রাংশের জোগান দেবে এই কেন্দ্রটি।  কলকাতায় সংস্থাটির অন্যতম ডিলার সৌরভ কেডিয়ার আশা, ২৪-৪৮ ঘণ্টার মধ্যে যন্ত্রাংশ মিলবে। 

এ দিন প্রকল্পটির শিলান্যাসের পরে হেমন্ত জানান, ওই কেন্দ্রে অন্তত ৪০,০০০ যন্ত্রাংশ মজুত থাকবে। এক বছরের মধ্যে কেন্দ্রটি চালু হবে। তার পরে বছর দু’য়েকের মধ্যে প্রায় ৭০০ কোটি টাকার ব্যবসার আশা করছেন তাঁরা। সব মিলিয়ে প্রায় ১,০০০ কর্মসংস্থান হবে বলে দাবি তাঁর। তবে এ রাজ্যে আলাদা করে যন্ত্রাংশ নির্মাণের কোনও পরিকল্পনা এখনই তাঁদের নেই বলেও জানান হেমন্ত। 

সরকারি সূত্রের বক্তব্য, রাজ্য এ ধরনের লজিস্টিক্স হাব তৈরির জন্য আগেই বিশেষ নীতি তৈরি করেছে। তাদের দাবি, আনুষঙ্গিক পরিকাঠামোর জন্য পশ্চিমবঙ্গ ভবিষ্যতে লজিস্টিক্স হাবের কেন্দ্র হয়ে উঠতে পারে।