• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আপসে মিটমাটের পরামর্শ

Aravind
অরবিন্দ পানাগড়িয়া। —ফাইল চিত্র।

দেশের স্বার্থের কথা মাথায় রেখে এ বার যুযুধান কেন্দ্র ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে আপসে সমঝোতার পথে হাঁটার পরামর্শ দিলেন নীতি আয়োগের প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যান অরবিন্দ পানাগড়িয়া। বললেন, যতই মতের ফারাক থাক, পরস্পরের হাত ধরে এগিয়ে যাওয়া উচিত দু’পক্ষের। ঠিক যে ভাবে ২০০৮ সালের বিশ্ব জোড়া মন্দার পরে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পরিস্থিতি সামলাতে ঝাঁপিয়েছিল মার্কিন সরকার ও সে দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ফেডারেল রিজার্ভ।

হালে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের স্বাধীনতার প্রশ্নে দানা বেঁধেছে বিতর্ক। বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে নজরদারি বা অনুৎপাদকের সমস্যা সামলানো থেকে শুরু করে ব্যাঙ্ক নয় এমন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে নগদের জোগান, ধুঁকতে থাকা বিদ্যুৎ সংস্থাগুলিকে সুবিধা দেওয়ার মতো নানা বিষয়ে প্রকট হয়েছে কেন্দ্র, শীর্ষ ব্যাঙ্কের মতের ফারাক। এমনকি এই প্রথমবার তা গড়িয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক আইন অনুযায়ী শীর্ষ ব্যাঙ্ককে কেন্দ্রের নির্দেশ দেওয়ার অধিকার প্রয়োগ পর্যন্ত।

এই পরিস্থিতিতে পানাগড়িয়ার দাবি, আইনের দিক থেকে মার্কিন শীর্ষ ব্যাঙ্ক ফেডারেল রিজার্ভের তুলনায় ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কম স্বাধীনতা পায় ঠিকই। কিন্তু বাস্তবে কাজের দিক থেকে দুই দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্কই উপভোগ করে সমান স্বাধীনতা। মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে ফেড রিজার্ভের সহযোগিতার উদাহরণ তুলে ধরে বর্তমানে কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্ডিয়ান পলিটিক্যাল ইকনমির এই অধ্যাপকের মন্তব্য, পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেন, আরবিআই এবং সরকারের হাত মিলিয়ে কাজ করাই বাঞ্ছনীয়।

বিরোধের প্রশ্নে সংবাদমাধ্যমকেও একহাত নেন পানাগড়িয়া। বলেন, কেন্দ্র-শীর্ষ ব্যাঙ্ক পরস্পরের সঙ্গে মিলে কী কী কাজ করে তা তুলে ধরার বদলে মতের ফারাককে ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে দেখানো হচ্ছে। যা দুঃখের।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন