তেল ও শক্তি থেকে শুরু করে টেলিকম ক্ষেত্র দাপিয়ে বেড়ানোর পর শিল্পপতি মুকেশ অম্বানীর রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ এ বার ঢুকে পড়ল খেলনার জগতেও। কিনে নিল খেলনার ডাকসাইটে ব্রিটিশ খুচরো বিক্রেতা ‘হ্যামলেজ’কে।  বৃহস্পতিবার রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজের তরফে এ কথা জানানো হয়েছে। বলা হয়েছে, ভারতে হ্যামলেজের সব ধরনের খেলনা বিক্রির লাইসেন্সও পেয়ে গিয়েছে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ। তবে কী দামে কেনা হল ‘হ্যামলেজ’, রিলায়্যান্সের তরফে তা জানানো হয়নি।

২৫৯ বছরের ‘হ্যামলেজ’ খেলনার জগতে বরাবরই একটি বিশিষ্ট নাম। এই সুদীর্ঘ সময়ে বহু ধাক্কা সয়েছে মধ্য লন্ডনের রিজেন্ট স্ট্রিটের হ্যামলেজের স্টোর। ব্যবসার তীব্র মন্দার ঝড়ঝাপ্টা সয়েছে যেমন, তেমনই তাকে সইতে হয়েছে বিশ্বযুদ্ধের ঝড়ও। এই মুহূর্তে ১৮টি দেশে হ্যামলেজের খেলনার স্টোর রয়েছে ১৬৭টি। তার মধ্যে ভারতের ২৯টি শহরে রয়েছে হ্যামলেজের ৮৮টি স্টোর। যার অর্থ, গোটা বিশ্বে হ্যামলেজের স্টোর রয়েছে যতগুলি, তার বেশির ভাগই রয়েছে ভারতে।

রিলায়্যান্সের তরফে জানানো হয়েছে, হ্যামলেজকে কেনা হয়েছে হংকং শেয়ার বাজারে নথিভুক্ত সি-ব্যানার ইন্টারন্যাশনাল হোল্ডিংসের কাছ থেকে। আজ থেকে ৪ বছর আগে, ২০১৫-য় ফ্রান্সের গ্রুপে লুদেন্দোর কাছ থেকে ১৩ কোটি ২ লক্ষ ডলার বা ১০ কোটি পাউন্ডে হ্যামলেজ কিনে নিয়েছিল সি-ব্যানার ইন্টারন্যাশনাল হোল্ডিংস।

আরও পড়ুন- ব্রাজিল হয়েই না দৌড় থেমে যায় ভারতের!​

আরও পড়ুন- সরকারি তথ্যে আস্থা নেই, খোঁজ বিকল্পের

রিলায়্যান্সের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার দর্শন মেটা বলেছেন, ‘‘হ্যামলেজ কেনার ফলে, আন্তর্জাতিক খুচরো বিক্রেতাদের বাজারে একেবারে সামনের সারিতে এসে গেল রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ। মর্যাদা পেল আন্তর্জাতিক খুচরো বিক্রেতার।’’