লম্বা সময় ধরে নাগাড়ে অনেকখানি পড়েছে ডলারের সাপেক্ষে টাকার দাম। বুধবার তা বেশ কিছুটা বাড়ল। ৪১ পয়সা পড়ে ডলার দাঁড়াল ৭৩.১৬ টাকায়। গত তিন সপ্তাহের মধ্যে এতটা নীচে নামতে দেখা যায়নি মার্কিন মুদ্রাটিকে। টানা চার দিন নামার পরে এ দিন ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাজারও। প্রায় ১৮৭ পয়েন্ট উঠে সেনসেক্স ফিরেছে ৩৪ হাজারের ঘরে। থেমেছে ৩৪,০৩৩.৯৬ অঙ্কে।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, এ দিন টাকা এক লাফে এতটা বেড়েছে বিশ্ব বাজারে অশোধিত তেলের দর কমায়। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার জেরে আগামী দিনে ইরান থেকে তেলের জোগান কমলে, সেই ঘাটতি পূরণ করা হবে বলে সৌদি আরবের প্রতিশ্রুতিই যার কারণ। সেই সঙ্গে ভারতীয় মুদ্রাকে ঠেলে তুলেছে দেশে শেয়ার সূচকের উত্থান ও ব্যাঙ্ক, রফতানিকারীদের বিপুল ডলার বিক্রিও।

বস্তুত, উদ্বেগ বাড়িয়ে কিছু দিন আগেই ৭৪ টাকার মাইলফলক পেরিয়ে গিয়েছিল ডলার। তেলের মতো বিভিন্ন আমদানি পণ্যের দাম মেটাতে গিয়ে যার ধাক্কা ভাল মতোই টের পাচ্ছিল কেন্দ্র। আশঙ্কা চেপে বসছিল চলতি খাতে ঘাটতির নিয়ন্ত্রণ হারানো নিয়ে। সঙ্গে ছিল নিয়ম করে বিরোধীদের তোপ। ভোটের মুখে তা অস্বস্তিতে ফেললেও, মোদী সরকারের দাবি ছিল, পুরোটাই আসলে আন্তর্জাতিক দুনিয়ার প্রভাব। সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, এ বার সেই বিশ্ব বাজারের জেরেই টাকা ফের মাথা তোলায় কিছুটা হলেও স্বস্তি পাবে তারা। বিশেষ করে সামনেই যেখানে পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোট।

এ দিন সূচকও বাড়ে মূলত বিশ্ব বাজারে তেলের দাম কমায়।