শিল্পবৃদ্ধি তলানিতে ঠেকা থেকে শুরু করে মূল্যবৃদ্ধির মাথা তোলা— অর্থনীতির পরিস্থিতি স্বস্তিদায়ক নয় মোটেই। কিন্তু এরই মধ্যে অন্য কয়েকটি শর্ত অনুকূল হওয়ায় মঙ্গলবার এক ধাক্কায় ৩৬৯.৮০ পয়েন্ট উঠে নতুন রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলল সেনসেক্স। এই প্রথম সূচক পা রাখল ৩৯,২৭৫.৬৪ অঙ্কে। লেনদেনের মধ্যবর্তী সময়ে তা ৩৯,৩৬৪.৩৪ পয়েন্টও ছুঁয়েছিল। এর আগে ২ এপ্রিল বিএসই সূচক প্রথম বার ৩৯,০০০-এর ঘরে দিন শেষ করে। এ দিন নিফ্‌টিও ৯৬.৮০ পয়েন্ট বেড়ে প্রথম বার থিতু হয়েছে ১১,৭৮৭.৫০ অঙ্কে। 

বিশেষজ্ঞদের একাংশের বক্তব্য, ভাল বর্ষার পূর্বাভাস, শিল্প সংস্থাগুলির ভাল ফলের আশা, আন্তর্জাতিক বাজারে অশোধিত তেলের দাম কমা, বিদেশের বিভিন্ন শেয়ার বাজারের উত্থান এবং ভারতীয় শেয়ার বাজারে বিদেশি লগ্নিকারী সংস্থাগুলির টানা বিনিয়োগ— এ সবের ফলেই এ দিন সূচকের উত্থান হয়েছে। যদিও ডলারের তুলনায় এ দিন টাকার দাম পড়েছে। প্রতি ডলারের দাম আগের দিনের থেকে ১৮ পয়সা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৯.৬০ টাকা। 

ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে ফল প্রকাশের মরসুম। ক্যালকাটা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রাক্তন ডিরেক্টর এস কে কৌশিক বলেন, ‘‘আমাদের আশা, সংস্থাগুলির ফলাফল ভাল হবে।’’ 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

আজ কী কী
• লেনদেন শেষে রেকর্ড উচ্চতায় সেনসেক্স। 
• দিনের মাঝের লেনদেনেও রেকর্ড ছুঁল সূচক। 
• লেনদেন শেষের সর্বকালীন রেকর্ড নিফ্‌টিরও। 
• ১ ডলারের দাম ১৮ পয়সা বেড়ে ৬৯.৬০ টাকা।

উত্থানের কারণ
• দেশে স্বাভাবিক বর্ষার পূর্বাভাস।
• ভোট ভাবনায় লগ্নিকারীদের সতর্কতা সত্ত্বেও সংস্থাগুলির ভাল ফলের প্রত্যাশা।
• বিভিন্ন দেশের শেয়ার সূচকের উত্থান।

তবে বিশেষজ্ঞদের অন্য একটি অংশের ধারণা, সূচকের এই উত্থান কৃত্রিম। মূল্যবৃদ্ধি ফের মাথা তুলছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সুদ কমানোর পথে তা কাঁটা হতে পারে। এ দিন কমলেও সার্বিক ভাবে বাড়ছে অশোধিত তেলের দাম। পরিস্থিতি অনুকূল না হলে বিনিয়োগ সরাতে পারে বিদেশি লগ্নিকারী সংস্থাগুলি।