• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বঞ্চিত, দাবি গাড়ি শিল্পের 

cars
—ফাইল চিত্র।

অর্থনীতির ঝিমুনির জেরে গাড়ি কেনার চাহিদা ২২ বছরে তলানিতে। ছাঁটাই হয়েছেন লক্ষাধিক কর্মী। আশা ছিল, বাজেট সেই ক্ষতে কিছুটা প্রলেপ দেবে। কিন্তু শনিবার বাজেট প্রস্তাব দেখে তাদের দাবি, বৈদ্যুতিক গাড়ি ও তার যন্ত্রাংশ আমদানিতে শুল্ক বাড়ানোয় দেশে সেগুলির উৎপাদনের পথ সহজ হওয়া ছাড়া কিছু মেলেনি।

গাড়ি সংস্থাগুলির সংগঠন সিয়ামের প্রেসিডেন্ট রাজন ওয়াধেরা বলেছেন, ‘‘আশা ছিল, এই শিল্পকে কিছুটা সুরাহা দেওয়া হবে। বিএস৬ মাপকাঠির গাড়ি তৈরিতে বিপুল লগ্নি করতে হচ্ছে। আর্থিক সুবিধা পেলে তা করা সহজ হত।’’ রাজন ও গাড়ির ডিলারদের সংগঠন ফাডার প্রেসিডেন্ট আশিস হর্ষরাজ কালের দাবি, পুরনো গাড়ি বাতিলের নীতি ঘোষণা হলে, নতুন গাড়ির চাহিদা বাড়ত। পরে অবশ্য নির্মলা জানিয়েছেন, ওই নীতির বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে ভাবছেন।

তবে বাজেটে বৈদ্যুতিক গাড়ি ও তার কিছু যন্ত্রাংশের আমদানি শুল্ক বাড়ার ঘোষণায় খুশি গাড়ি শিল্প। এতে ভারতেই তা তৈরিতে আগ্রহ বাড়বে বলে মত তাদের। রফতানি বাড়াতে গাড়ির যন্ত্রাংশ-সহ মাঝারি শিল্পের জন্য ১০০০ কোটি টাকার প্রকল্প আনার কথা বলা হয়েছে। সেই প্রস্তাবে সন্তুষ্ট গাড়ির যন্ত্রাংশ নির্মাতা সংস্থাগুলির সংগঠন অ্যাকমার প্রেসিডেন্ট দীপক জৈন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন