• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নিখোঁজ যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার

sarfaraz alam
সরফরাজ আলম

Advertisement

নিকাশি নালা থেকে মিলল তিন দিন ধরে নিখোঁজ থাকা এক যুবকের মৃতদেহ। শনিবার, গার্ডেনরিচ থানা এলাকায় কলকাতা পুরসভার ১৫ নম্বর বরো অফিসের সামনের ঘটনা।

মৃতের নাম সরফরাজ আলম (১৮)। বাড়ি রাজাবাগান থানা এলাকায়। পুলিশ জানায়, বুধবার বিকেলে তিনি বন্ধুদের সঙ্গে বেরিয়েছিলেন। শনিবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ বরো অফিসের সামনে স্থানীয় কয়েক জন যুবক সরফরাজকে নালায় পড়ে থাকতে দেখে তাঁর এক বন্ধুকে জানান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে এসএসকেএম হাসপাতালে ময়না-তদন্তের জন্য পাঠায়।

দেহের সুরতহাল করে পুলিশ জানায়, মৃতদেহে পচন ধরেছিল। তবে প্রাথমিক ভাবে তাতে আঘাতের কোনও চিহ্ন মেলেনি। মৃতের পরনে ছিল নীল পাঞ্জাবী। তার ট্রাউজার্সের পকেট থেকে পাওয়া দু’টি মোবাইল ফোনই বন্ধ ছিল।

পুলিশ জানায়, বুধবার ওই যুবককে শেষ বারের মতো গার্ডেনরিচ থানা এলাকায় দেখা গিয়েছিল। পুলিশ এও জানতে পেরেছে, সরফরাজ নেশা করেছিলেন। কিন্তু কী ভাবে তিনি নালায় পড়ে গেলেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। এ দিন সরফরাজের বাবা মহম্মদ ইসলাম অবশ্য অভিযোগ করেন, তাঁর ছেলেকে কেউ খুন করে নালায় ফেলে দিয়েছে। তবে তিনি পুলিশের কাছে রাত পর্যন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ জানাননি। ময়না-তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে মৃত্যুর কোনও কারণ এখনও বলা হয়নি।

সরফরাজের বন্ধু মহম্মদ শাহিদ ও তাঁর আত্মীয় আবিদ হোসেন এ দিন জানান, ওই যুবক জামাকাপড় সেলাইয়ের কাজ করতেন। বুধবার নতুন পাঞ্জাবী পরে, মাথায় নতুন কাপড় জড়িয়ে জনা চারেক বন্ধুর সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। ছেলে রাতে বাড়ি না ফেরায় তাঁর বাবা পরদিন প্রথমে রাজাবাগান, পরে গার্ডেনরিচ থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন। শাহিদ জানান, বৃহস্পতিবার দিনভর তাঁর বন্ধুর খোঁজ চলে। জানা যায়, বুধবার বিকেলে বটানিক্যাল গার্ডেনে যেতে দেখা গিয়েছিল সরফরাজকে। লঞ্চে গঙ্গা পেরিয়ে তাঁরা ফেরিঘাটের সিসিটিভি ফুটেজে সরফরাজ ও তাঁর বন্ধুদের ছবি দেখতে পান। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন