• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সাদা কাগজকে টাকা করে দেওয়ার জালিয়াতি, ধৃত দুই

Arrest
প্রতীকী চিত্র।

এ যেন ঠিক ‘ছিল রুমাল, হয়ে গেল বেড়াল’-এর গল্প!

নানা রঙের সাহায্যে সাদা কাগজকে টাকায় বদলে দেওয়া যাবে, এমন প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার অভিযোগে তারুলিয়া থেকে বৃহস্পতিবার দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে নিউ টাউন থানার পুলিশ। ধৃতদের নাম দেবাশিস মণ্ডল এবং সৌরভ মল্লিক। পুলিশ সূত্রের খবর, এ দিন সকালে তারুলিয়ায় ওই দু’জনকে সন্দেহজনক ভাবে ঘুরতে দেখা যায়। প্রথমে তারা পরিচয় বলতে চাইছিল না। পরে জানা যায়, দু’জনে বাসন্তী এলাকার বাসিন্দা। তদন্তকারীদের দাবি, জিজ্ঞাসাবাদে ধৃতেরা দোষ স্বীকার করেছে। তাদের কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তরল রঙের আটটি ছোট বোতল, একটি স্পিরিটের বোতল, সাদা পাউডার, ১০০ ডলারের মতো দেখতে রঙিন তিনটি নোট, একটি ৫০০ টাকার নোট এবং ১০০০ টুকরো সাদা কাগজ।   

ধৃত দেবাশিস ও সৌরভকে জেরা করে পুলিশ জেনেছে, সাদা কাগজে রং করে সেটি আর একটি কাগজে মুড়ে হাতের তালুতে রেখে ঘোরালেই নাকি আস্ত নোট হয়ে যাচ্ছে! এমনটাই তারা বলত লোকজনকে। এ-ও জানাত, ওই রং কিনতে গেলে কয়েক লক্ষ টাকা দিতে হবে। শুধু তা-ই নয়, ডলার ভাঙিয়ে দেওয়ার নাম করেও প্রতারণা করত তারা।

তদন্তকারীরা জেনেছেন, প্রথম ক্ষেত্রে ধৃতেরা একটি টাকায় আগে থেকে রং করে সাদা কাগজে মুড়ে ব্যাগে রাখত। এর পরে সবার সামনে একটি সাদা কাগজে রং করে সেটি অন্য একটি সাদা কাগজে মুড়ে হাতের কারসাজিতে আগে থেকেই ব্যাগে রাখা রং করা টাকা বার করে হাতের তালুতে রেখে ঘোরাত। কিছু ক্ষণ পরে তারা লোকজনকে বলত, সাদা কাগজটা টাকা হয়ে গিয়েছে। এমন করতে গেলে ওই রং কিনতে হবে। দাম পড়বে কয়েক লক্ষ টাকা। 

শুধু তা-ই নয়। নিজেদের নানা সমস্যার কথা বলে ধৃতেরা লোকজনকে বলত, তারা টাকার বিনিময়ে কিছু ডলার ভাঙাতে চায়। কেউ রাজি হলে তাঁকে ১০০ ডলারের মতো দেখতে রঙিন নোট দিয়ে তার বিনিময়ে টাকা নিয়ে চম্পট দিত।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তদের সঙ্গে আরও কেউ জড়িত কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন